বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > মলমাসে এই ৮টি কাজ করলে প্রসন্ন হন বিষ্ণু
মলমাসের সময় বিষ্ণুকে হলুদ রঙের জিনিস অর্পণ করা উচিত।
মলমাসের সময় বিষ্ণুকে হলুদ রঙের জিনিস অর্পণ করা উচিত।

মলমাসে এই ৮টি কাজ করলে প্রসন্ন হন বিষ্ণু

  • মলমাস চলাকালীন বিষ্ণুর পূজার্চনা করা হয়। এই মাসকে বিষ্ণু নিজের নাম দিয়েছিলেন। তাই এটি পুরুষোত্তম মাস হিসেবেও বিখ্যাত।

১৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে মলমাস। মলমাস চলাকালীন বিষ্ণুর পূজার্চনা করা হয়। এই মাসকে বিষ্ণু নিজের নাম দিয়েছিলেন। তাই এটি পুরুষোত্তম মাস হিসেবেও বিখ্যাত। এ সময়ে এমন কিছু কাজ আছে, যা করলে বিষ্ণুর আশীর্বাদ লাভ করা যায়। 

১. মলমাসে যে দুটি একাদশী আসে, তাতে বিষ্ণুকে পায়েসের ভোগ দিলে সুফল পাওয়া যায়। আশীর্বাদ লাভের জন্য পায়েসে অবশ্যই তুলসী পাতা দেওয়া উচিত।

২. হলুদ বিষ্ণুর প্রিয় রঙ। তাই মলমাসের সময় বিষ্ণুকে হলুদ রঙের জিনিস অর্পণ করা উচিত। যেমন, হলুদ ফুল, ফল, বস্ত্র ইত্যাদি। পরে এগুলি দান করে দেওয়া উচিত।

৩. তুলসী বিষ্ণুর অত্যন্ত প্রিয়। এই মাস চলাকালীন তুলসী গাছে গাওয়া ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালানো উচিত। এর পর ওম নমঃ ভগবতে বাসুদেবায়ে মন্ত্র জপ করে তুলসী গাছের ১১ বার প্রদক্ষিণা করলে সুফল মেলে।

৪. পুরো মলমাসে ব্রহ্মমুহূর্তে উঠে স্নানের পর জাফরান মিশ্রিত দুধ দিয়ে বিষ্ণুর অভিষেক করা উচিত। এর পর ১১ বার ওম নমঃ ভগবতে বাসুদেবায়ে মন্ত্র জপ করুন।

৫. শাস্ত্র অনুযায়ী, অশ্বত্থ গাছে বিষ্ণুর বাস। তাই মলমাস চলাকালীন এই গাছে জল অর্পণ ও গাওয়া ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালালে বিষ্ণুর আশীর্বাদ লাভ সম্ভব হয়। 

৬. এ সময়ে রোজ সূর্যকে জলের অর্ঘ্য দেওয়া উচিত। অর্ঘ্য দেওয়ার সময় বিষ্ণুর ধ্যান করতে হয়। 

৭. কথিত আছে, মলমাসের সময় দক্ষিণাবর্তী শঙ্খের পুজো করা উচিত। এর ফলে বিষ্ণুর পাশাপাশি লক্ষ্মীরও আশীর্বাদও লাভ করা যায়।

৮. মলমাসের নবমী তিথিতে কুমারীকন্যাদের ভোজন করালে সমস্ত মনস্কামনা পূর্ণ হয়।

বন্ধ করুন