বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > রাশি মেনে কাজ করলেই গলে জল হবে রাগ
রাগ দূর করার জন্য সকালে উঠে, সূর্যকে জলের অর্ঘ্য দিন।

রাশি মেনে কাজ করলেই গলে জল হবে রাগ

  • রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য জ্যোতিষ শাস্ত্রও কিছু পথের সন্ধান দিয়েছে। রাশি অনুযায়ী তা মেনে চললে, সুফল পাওয়া যেতে পারে।

কথায় বলে, রাগ মানুষের সবচেয়ে বড় শত্রু। রাগের ফলে শুধু সম্পর্কই নষ্ট হয় না, বরং ব্যক্তির শারীরিক ক্ষতিও হয়ে থাকে। তাই রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখার গুণ প্রত্যেক ব্যক্তির থাকা উচিত। রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য জ্যোতিষ শাস্ত্রও কিছু পথের সন্ধান দিয়েছে। রাশি অনুযায়ী তা মেনে চললে, সুফল পাওয়া যেতেই পারে।

মেষ- আপনার রাশির অধিপতি মঙ্গল, তাই ক্ষুব্ধ হওয়ার সম্ভাবনা বহুগুণ বেড়ে যায়। নিজের রাগ কমানোর জন্য মঙ্গলবার উপোস রাখা উচিত। পাশাপাশি, এ দিন বজরংবলীর পুজোও রাগ কমাতে সাহায্য করবে। এদিন যদি তৃষ্ণার্ত ব্যক্তিকে মিষ্টি জল দান করেন, তাহলে তা আবেগ নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হবে।

বৃষ- এই রাশির জাতকদের দুধ ও দুগ্ধজাত দ্রব্য আহারে গ্রহণ করা উচিত। সাদা রং রাগ কমায়। দুধ, দই, মাখন, পনীর ইত্যাদি নিয়মিত নিজের খাবারে অন্তর্ভুক্ত করলে রাগ দূর হয়। এর পাশাপাশি দূর্গার আরাধনা করলে সুফল পাওয়া যাবে।

মিথুন- একবার রেগে গেলে, এই রাশির জাতকদের সহজে শান্ত করানো যায় না। রাগে আপনি আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন। তাই রাগ শান্ত করার জন্য সবুজ জিনিসের দান করুন। পাশাপাশি সবুজ ডাল নিজের খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন। গণেশের পুজো করলে ব্যক্তিত্বের এই দোষ দূর করা সম্ভব।

কর্কট- এই রাশির জাতকরা ধূমপানের পরিবর্তে মিষ্টি মৌরী খান। জল দিয়ে অত্যধিক স্নান করুন। রাগ কমানোর জন্য কার্তিকেয়র পুজো করা উচিত। 

সিংহ- রাগ দূর করার জন্য সকালে উঠে, সূর্যকে জলের অর্ঘ্য দিন। পাশাপাশি বাড়ির বয়স্ক ব্যক্তিদের সেবাযত্ন করুন। এর ফলে সূর্যের সমস্ত শুভ ফল লাভ করতে পারবেন। ললাটে লাল সিঁদূরের তিলক লাগালেও রাগ কমানো যেতে পারে। ক্রোধ কমানোর আর একটি অন্যতম উপায় হল, গরম খাবার খাওয়া এড়িয়ে চলুন। সূর্য ও বিষ্ণুর আরাধনা করলে, তা রাগ কমাতে সহায়ক হবে।

কন্যা- বুধবার সবুজ কাপড় পরলে রাগ কমানো যাবে। ছোট-ভাইবোন ও বন্ধুদের সঙ্গে মধুর সম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করুন। গণেশ দর্শন ও গণেশ মন্ত্র জপ করলে রাগ কমবে।

তুলা- এই রাশির জাতকদের রাগ কম। শান্ত স্বভাব সত্ত্বেও, পরিস্থিতির কারণে রেগে যেতে পারেন। রাগ দূর করার জন্য মাথায় চন্দনের তিলক লাগানো উচিত। পাশাপাশি শিবাষ্টক পাঠ করা উচিত।

বৃশ্চিক- এই রাশির জাতকদের নিজের রাগ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কাঁচা দুধে স্বল্প দই ও জাফরান মিশিয়ে তিলক করা উচিত। সরস্বতীর পুজো করা উচিত। ক্রোধ কমানোর জন্য অত্যধিক স্নান করা উচিত।

ধনু- রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য রাতে ঘুমানোর আগে একটি পাত্রে জল নিয়ে তাতে সন্ধৈব লবণ দিয়ে, সেই জলে আধ ঘণ্টা পা ডুবিয়ে রাখুন। সকালে ভ্রামরী প্রাণায়াম করুন। স্বভাব শান্ত রাখার জন্য অত্যধিক মশলাদার খাবার খাবেন না। প্রতিদিন কৃষ্ণ পুজো করা উচিত।

মকর- নিজেকে ক্রোধমুক্ত রাখার জন্য ফাস্ট ফুড এড়িয়ে চলুন। এর পরিবর্তে সবুজ শাক-সবজি বেশি করে খান। সকালে লক্ষ্মী পুজো করলে রাগ কমবে।

কুম্ভ- ক্রোধ ও আবেগ কমানোর জন্য রোজ একটি ছোট এলাচ খান। রাজমা, লাউ, ময়দা, বিউলি ডাল খাদ্য তালিকা থেকে বাতিল করা উচিত।

মীন- রাগ কমানোর জন্য মিষ্টি ও নোনতা খান। সোমবারের উপোস রাগ কমাতে কার্যকরী। আবার পেঁয়াজ-রসুন না-খাওয়াই ভালো।

বন্ধ করুন