বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Tulsi Vivah: চন্দ্র দোষ দূর করতে চান? আগামিকাল তুলসী বিবাহে করুন এই কাজটি

Tulsi Vivah: চন্দ্র দোষ দূর করতে চান? আগামিকাল তুলসী বিবাহে করুন এই কাজটি

এই বছর তুলসী বিবাহ উদযাপিত হচ্ছে ৫ নভেম্বর।   

tulsi vivah:  এই বছর তুলসী বিবাহ কবে? চন্দ্র দোষ দূর করতে আগামীকাল তুলসী বিবাহতে কি প্রতিকার করবেন?

এই বছর তুলসী বিবাহ উদযাপিত হচ্ছে ৫ নভেম্বর। হিন্দু বিশ্বাস অনুসারে, দেবোত্থানী একাদশীর দিন, ভগবান বিষ্ণু চার মাস যোগ নিদ্রার পরে জাগ্রত হন। এবার দেবোত্থানী একাদশী ৪ নভেম্বর অর্থাৎ শুক্রবার। তবে তুলসীবিবাহ হবে শনিবার। এই দিন থেকে বিবাহ থেকে সকল শুভ কাজ শুরু হয়। তুলসী বিবাহ ও পূজা করার জন্য পূজার উপকরণে কিছু জিনিস অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। এখানে জেনে নিন সঠিক তিথি, শুভ সময়, পূজা পদ্ধতি, মন্ত্র এবং এই দিনের গুরুত্ব।

কিভাবে তুলসী বিবাহ হয়

এই দিনে মহিলারা সকালে ঘুম থেকে উঠে স্নান করে নতুন পোশাক পরে।

উপাসনা স্থান অনেক সজ্জিত করা হয়।

 এই দিন তুলসী মাকে ষোল শৃঙ্গার করার পর আখ ও চুনরি নিবেদন করতে হবে।

তুলসী গাছের কাছে ভগবান শালিগ্রামকে স্থাপন করে উভয়েরই পূজা করা উচিত।

এর পরে ভগবান শালিগ্রাম হাতে নিয়ে তুলসীকে প্রদক্ষিণ করুন। 

এর পরে, শালিগ্রামের বাম দিকে তুলসী স্থাপন করার পরে, উভয়ের আরতি করুন এবং বিবাহ সম্পন্ন করুন।

আগামী ৫ নভেম্বর শনিবার পালিত হবে তুলসী বিবাহ। কার্তিক দ্বাদশী তিথি ৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬.০৮ মিনিট থেকে শুরু হবে এবং ৬ নভেম্বর বিকাল ৫.০৬ টায় শেষ হবে।

তুলসী বিবাহের গুরুত্ব

হিন্দু বিশ্বাস অনুসারে, তুলসী বিবাহ করালে কন্যা দানের সমান পুণ্য লাভ হয়। অতএব, যদি কেউ কন্যা সন্তান দান না করে থাকেন তবে তিনি অবশ্যই জীবনে একবার তুলসী বিবাহ করিয়ে কন্যাদানের সমান পুণ্য অর্জন করুন। বিশ্বাস অনুসারে, তুলসী বিবাহের আচার পালনকারী ভক্তরা সুখ ও সৌভাগ্য লাভ করে। সমস্ত ঝামেলা থেকে মুক্তি পায় এবং ভগবান বিষ্ণুর কৃপায় সমস্ত মনোবাঞ্ছা পূর্ণ হয়। কারো দাম্পত্য জীবনে কোনো সমস্যা হলে সব বাধা দূর হয়ে যায়।

তুলসী বিবাহ পূজা সমগ্রী তালিকা

মূলা, আমলকি, মিষ্টি আলু, জলের বপাত্র,  ধনেপাতা, পেয়ারা এবং পূজার অন্যান্য সামগ্রী, মণ্ডপ তৈরির জন্য আখ, ভগবান বিষ্ণুর মূর্তি, তুলসী গাছ,  ধূপ, প্রদীপ, কাপড়, মালা, ফুল, মধু, লাল চুনরি, শাড়ি, হলুদ।

তুলসী বিবাহের দিন আপনাকে তুলসী গাছ থেকে একটি পাতাও ছিড়বেন না।

তুলসী বিবাহতে তিল ও কলার প্রসাদও দিতে পারেন। এ দুটিই শ্রী বিষ্ণুর অত্যন্ত প্রিয়।

শুকনো বা কালো হয়ে যাওয়া তুলসী পাতা বাছাই করুন । তুলসী গাছের গোড়ার মাটি পরিষ্কার করুন । যদি পুরানো ফুল বা প্রসাদ দেওয়া থাকে গাছের গোড়ায় তবে তা সরিয়ে ফেলুন।

তুলসীমাকে এই জিনিসগুলি নিবেদন করুন

এই দিন তুলসী গাছে চুড়ি, অলতা, মেহেন্দি, খোপায় লাগাবার ফুল এবং পদ্মফুল অর্পণ করুন। বিয়ের জোড়ের জন্য একটি হলুদ কাপড় রাখুন। সেই সঙ্গে শালিগ্রামকে হলুদ বস্ত্র পরান।

চন্দ্র দোষ দূর হয়

যাদের কুণ্ডলীতে চন্দ্র দুর্বল তাদের এই দিনে জল ও ফলমূল খেয়ে উপবাস করতে হবে বা নির্জলা একাদশীর উপবাস করতে হবে। এতে চন্দ্র দেবতা প্রসন্ন হন এবং তার মানসিক অবস্থারও উন্নতি হয়।

বন্ধ করুন