বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Vivah Panchami : কাঙ্খিত জীবনসঙ্গী পেতে বিবাহ পঞ্চমীতে করুন এই প্রতিকার,বিবাহিত জীবনেও ফিরবে সুখ

Vivah Panchami : কাঙ্খিত জীবনসঙ্গী পেতে বিবাহ পঞ্চমীতে করুন এই প্রতিকার,বিবাহিত জীবনেও ফিরবে সুখ

এই বছর, এ বছর বিবাহ পঞ্চমীর উত্‍সব পালিত হবে ২৮ নভেম্বর ২০২২-এ।   

Vivah Panchami : কেন বিবাহ পঞ্চমীর দিনটিকে বিবাহের মতো শুভ কাজের জন্য শুভ বলে মনে করা হয় না? বিবাহ পঞ্চমীর দিন বিবাহ সংক্রান্ত সমস্যা দূর করতে কী করবেন, জেনে নিন এখান থেকে।

প্রতি বছর মাগশীর্ষ মাসে, বিবাহ পঞ্চমীর উত্‍সব শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে পালিত হয়। এই বছর, এ বছর বিবাহ পঞ্চমীর উত্‍সব পালিত হবে ২৮ নভেম্বর ২০২২-এ। কথিত আছে এই দিনে অযোধ্যার রাজা ভগবান শ্রী রাম ও জনক দুলারি মা সীতার বিয়ে হয়েছিল। বিবাহ পঞ্চমী ভগবান শ্রী রাম এবং মা সীতার বিবাহের বার্ষিকী হিসাবে পালিত হয়। কিন্তু এই দিনটিকে বিবাহের মতো শুভ কাজের জন্য শুভ বলে মনে করা হয় না, কারণ ভগবান রামের সঙ্গে বিবাহের পর মা সীতাকে তাঁর জীবনে অনেক দুঃখ-কষ্টের সম্মুখীন হতে হয়েছিল। অন্যদিকে শাস্ত্র মতে এই দিনে বিয়ে না করা হলেও বিবাহ পঞ্চমীতে কিছু বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করলে দাম্পত্য জীবনে মাধুর্য আসে। আসুন জেনে নিই বিবাহ পঞ্চমীতে সুখী দাম্পত্য জীবন এবং কাঙ্খিত জীবনসঙ্গী পেতে কী করা উচিত।

কাঙ্ক্ষিত জীবনসঙ্গী পাওয়ার উপায়

প্রেমের বিয়েতে কোনো বাধা থাকলে বিবাহ পঞ্চমীর দিনে মা সীতার চরণে শৃঙ্গারের উপকরণ অর্পণ করে কাঙ্খিত জীবনসঙ্গী পাওয়ার প্রার্থনা করুন। অতঃপর পরের দিন কোন বিবাহিত মহিলাকে এই সামগ্রী দান করুন। শীঘ্রই প্রেম বিবাহের সম্ভাবনা তৈরি হবে।

সফল বিবাহিত জীবনের প্রতিকার

কোনো কারণ ছাড়াই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হলে বিবাহ পঞ্চমীর দিন স্বামী-স্ত্রী মিলে রামচরিতমানস বর্ণিত রাম-সীতার কাহিনী পাঠ করেন। এটা বিশ্বাস করা হয় যে বিবাহিত জীবনে মধুরতা আসে রামচরিতমানস পাঠ করলে।

দাম্পত্য জীবনের প্রতিবন্ধকতা দূর করতে

বিবাহযোগ্য যুবক বা যুবতীর বিবাহে সমস্যা দেখা দিলে বা সম্পর্ক দৃঢ় হওয়ার পরও যদি সম্পর্ক ভেঙে যায়, তবে বিবাহ পঞ্চমীর দিন রাম-সীতার বিবাহ উত্‍সব পালন করুন, বিধি মেনে রাম-সীতার বিবাহের আয়োজন করুন । এই কাজটি করলে কুণ্ডলিতে বিবাহ সংক্রান্ত দোষের অবসান হয়।

 

বন্ধ করুন