বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > দোল ছাড়াও মার্চে কোন কোন ব্রত ও উৎসব আছে মার্চে, দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা
ভালোবাসা ও সৌহার্দ্যের প্রতীক হিসেবে রঙের উৎসব হোলি প্রতিবছর ফাল্গুন মাসের পূর্ণিমার দিনে পালিত হয়।
ভালোবাসা ও সৌহার্দ্যের প্রতীক হিসেবে রঙের উৎসব হোলি প্রতিবছর ফাল্গুন মাসের পূর্ণিমার দিনে পালিত হয়।

দোল ছাড়াও মার্চে কোন কোন ব্রত ও উৎসব আছে মার্চে, দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা

  • মহাশিবরাত্রি ও দোলপূর্ণিমা এই মাসেই পালিত হবে।

চলতি বছরের মার্চ মাসে একাধিক ব্রত ও উৎসব পালিত হবে। মহাশিবরাত্রি ও দোলপূর্ণিমাও এই মাসেই পালন করা হবে। এখানে জানুন চলতি বছর মার্চ মাসে পালিত একাধিক ব্রত ও উৎসব সম্পর্কে—

২ মার্চ, সঙ্কষ্টী চতুর্থী- প্রতি মাসের চতুর্থী তিথিতে সঙ্কষ্টী চতুর্থী পালিত হয়। এদিন গণেশের পুজো করা হয়। ২ মার্চ মঙ্গলবার এই ব্রত পালিত হবে।

৬ মার্চ, জানকী জয়ন্তী- প্রতি বছর ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে এই জয়ন্তী পালিত হয়। মনে করা হয়, এদিন সীতার আত্মপ্রকাশ ঘটেছিল।

৮ মার্চ, মহর্ষি দয়ানন্দ সরস্বতী জয়ন্তী- হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণ পক্ষের দশমী তিথিতে আর্য সমাজের প্রতিষ্ঠাতা মহর্ষি দয়ানন্দ সরস্বতীর জন্ম জয়ন্তী পালিত হয়।

৯ মার্চ, বিজয়া একাদশী- ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের একাদশী তিথিকে বিজয়া একাদশী বলা হয়। ধর্মীয় ধ্যানধারণা অনুযায়ী, এই একাদশী ব্রত পালন করলে সমস্ত কাজ সফল হয়, তাই একে বিজয়া একাদশী বলা হয়ে থাকে। ৯ মার্চ মঙ্গলবার এই একাদশী।

১০ মার্চ, প্রদোষ ব্রত- ১০ মার্চ ফাল্গুন প্রদোষ ব্রত (কৃষ্ণপক্ষ) পালিত হয়। শিবের আশীর্বাদ কামনায় এদিন পুজো করা হয়। প্রতি মাসে কৃষ্ণ ও শুক্লপক্ষে-- দু'বার ত্রয়োদশী তিথিতে এই ব্রত পালন করা হয়।

১১ মার্চ, মহাশিবরাত্রি- ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের ত্রয়োদশী তিথিতে মহাশিবরাত্রি পালিত হয়। এই ব্রত শিবকে সমর্পিত।

১৩ মার্চ, ফাল্গুন অমাবস্যা- হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী, ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের শেষ তিথি ফাল্গুন অমাবস্যা। পিতৃপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনার উদ্দেশে এদিন দান, তর্পণ, শ্রাদ্ধকর্ম শুভ মনে করা হয়। 

১৪ মার্চ, মীন সংক্রান্তি- এদিন মীন রাশিতে প্রবেশ করে সূর্য। এক মাস এই রাশিতেই বিরাজ করে এই তেজস্বী গ্রহ। একে মলমাস বলা হয়। মলমাসে মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান আয়োজিত হয় না।

১৭ মার্চ, বিনায়ক চতুর্থী- প্রতি মাসের শুক্লপক্ষের চতুর্থী তিথিতে বিনায়ক চতুর্থী পালিত হয়।

হোলাষ্টক প্রারম্ভ- ফাল্গুন মাসের অষ্টমী তিথি থেকে হোলাষ্টক শুরু হয়। চলতি বছরে ২১ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হোলাষ্টক থাকবে। ধর্মীয় ধারণা অনুযায়ী, এ সময় বিয়ে, গাড়ি ও বাড়ি ক্রয় এবং অন্যান্য মাঙ্গলিক কাজ সম্পন্ন হয় না।

২৫ মার্চ, আমলকি একাদশী- বৈদিক পঞ্জিকা অনুযায়ী প্রতি বছর ফাল্গুন শুক্লপক্ষের একাদশী তিথি আমলকি একাদশী হিসেবে পরিচিত। একে রঙ্গভরী একাদশীও বলা হয়ে থাকে।

২৬ মার্চ, প্রদোষ ব্রত- শুক্লপক্ষের ফাল্গুন প্রদোশ ব্রত এই তারিখে পালিত হবে। 

২৮ মার্চ, দোল পূর্ণিমা, হোলিকা দহন- ফাল্গুন শুক্লপক্ষের পূর্ণিমা ২৮ মার্চ পড়েছে। এদিন স্নান, দান ও উপবাস পালনের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। এদিন হোলিকা দহন হয়।

২৯ মার্চ, হোলি- ভালোবাসা ও সৌহার্দ্যের প্রতীক হিসেবে রঙের উৎসব হোলি প্রতিবছর ফাল্গুন মাসের পূর্ণিমার দিনে পালিত হয়।

বন্ধ করুন