বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > জন্মাষ্টমীতে রাশি মেনে গোপালকে বস্ত্র ও ভোগ নিবেদন করুন, বাড়বে সুখ-সমৃদ্ধি
কুম্ভ রাশির জাতকরা দুধ দিয়ে অভিষেক করে কৃষ্ণকে নীল বস্ত্র পরান এবং বালুশাহীর ভোগ অর্পণ করুন।
কুম্ভ রাশির জাতকরা দুধ দিয়ে অভিষেক করে কৃষ্ণকে নীল বস্ত্র পরান এবং বালুশাহীর ভোগ অর্পণ করুন।

জন্মাষ্টমীতে রাশি মেনে গোপালকে বস্ত্র ও ভোগ নিবেদন করুন, বাড়বে সুখ-সমৃদ্ধি

  • শ্রদ্ধা-ভক্তিভরে কৃষ্ণের পুজো করলে দুঃখ-কষ্ট দূর হয়। এ বছর জন্মাষ্টমীর দিনে নিজের রাশি মেনে কৃষ্ণকে বস্ত্র ও ভোগ অর্পণ করলে তাঁর আশীর্বাদ লাভ করতে পারেন।

দেবকী ও যশোদা নন্দন এবং রাধারানীর পরম মিত্র কৃষ্ণকে বিষ্ণুর অষ্টম অবতার মনে করা হয়। ভাদ্রপদ মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে কৃষ্ণের জন্মোৎসব পালিত হয়। চলচি বছর ৩০ অগস্ট সোমবার জন্মাষ্টমী। শ্রদ্ধা-ভক্তিভরে কৃষ্ণের পুজো করলে দুঃখ-কষ্ট দূর হয়। এ বছর জন্মাষ্টমীর দিনে নিজের রাশি মেনে কৃষ্ণকে বস্ত্র ও ভোগ অর্পণ করলে তাঁর আশীর্বাদ লাভ করতে পারেন। এর ফলে পরিবারের সমস্ত দুঃখ কষ্ট দূর হয় এবং আনন্দের আগমন ঘটে। রাশি অনুযায়ী কোন রঙের বস্ত্র ও ভোগ অর্পণ করবেন জেনে নিন--

মেষ- নাড়ু গোপালকে লাল বস্ত্র পরিয়ে কুমকুমের তিলক লাগান এবং মাখন মিশ্রীর ভোগ অর্পণ করুন।

বৃষ- রুপোর পরতে কৃষ্ণের শৃঙ্গার করুন এবং সাদা বস্ত্র ও সাদা চন্দন অর্পণ করুন। মাখনের ভোগ লাগাবেন।

কর্কট- সাদা বস্ত্র পরিয়ে দুধ ও জাফরানের ভোগ অর্পণ করুন।

সিংহ- এই রাশির জাতকরা কৃষ্ণকে গোলাপী বস্ত্র পরান এবং অষ্টগন্ধের তিলক লাগান। মাখন মিশ্রীর ভোগ নিবেদন করুন।

কন্যা- নাড়ু গোপালকে সবুজ রঙের সুন্দর বস্ত্র পরিয়ে খোয়ার বরফির ভোগ দিন।

তুলা- জাফরানি বা গোলাপী রঙের বস্ত্র পরান এবং মাখন-মিশ্রী ও ঘিয়ের ভোগ নিবেদন করুন।

বৃশ্চিক- নাড়ু গোপালকে লাল বস্ত্র পরিয়ে খোয়া, মাখন বা দইয়ের ভোগ অবশ্যই নিবেদন করবেন।

ধনু- হলুদ বস্ত্র ও হলুদ ভোগ অর্পণ করলে সুফল লাভ করবেন।

কুম্ভ- এই রাশির জাতকরা দুধ দিয়ে অভিষেক করে কৃষ্ণকে নীল বস্ত্র পরান এবং বালুশাহীর ভোগ অর্পণ করুন।

মীন- পীতাম্বরী ও অলঙ্কার পরান। জাফরান ও খোয়ার বরফির ভোগ নিবেদন করুন।

বন্ধ করুন