বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > kartik Purnima : ভগবান বিষ্ণুর বিশেষ কৃপা পেতে কার্তিক পূর্ণিমায় অবশ্যই করুন এই প্রতিকার

kartik Purnima : ভগবান বিষ্ণুর বিশেষ কৃপা পেতে কার্তিক পূর্ণিমায় অবশ্যই করুন এই প্রতিকার

কার্তিক মাসের পূর্ণিমা ৮ নভেম্বর পড়ছে। 

kartik Purnima : কার্তিক পূর্ণিমা কবে? এদিন কী করবেন ভগবান বিষ্ণুর কৃপা পেতে,জেনে নিন এখান থেকে।

কার্তিক মাসের পূর্ণিমা ৮ নভেম্বর পড়ছে। এই দিনে কিছু ব্যবস্থা করলে দেবী লক্ষ্মী ও ভগবান বিষ্ণুর আশীর্বাদ পাওয়া যায়।

হিন্দু ধর্মে, কার্তিক মাসের পূর্ণিমাকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়। ধর্মীয় বিশ্বাস এই দিনে ভগবান বিষ্ণু মৎস্য অবতার রূপ নিয়েছিলেন। এ কারণেই কার্তিক মাসের পূর্ণিমা তিথিতে নদীতে গঙ্গা স্নানের পাশাপাশি দানও করা হয়। বিশ্বাস অনুসারে, কার্তিক মাসের পূর্ণিমা তিথি ভগবান বিষ্ণুর কাছে অত্যন্ত প্রিয়। এ বছর কার্তিক পূর্ণিমা আসছে ৮ নভেম্বর। আসুন জেনে নিই কার্তিক পূর্ণিমার দিনে কী কী করা গুরুত্বপূর্ণ।, এছাড়া  কোন কাজ করলে ভগবান বিষ্ণুর আশীর্বাদ পাওয়া যায়।

কার্তিক পূর্ণিমার তিথি ও শুভ মুহুর্ত

পূর্ণিমা শুরু  - ৭ নভেম্বর বিকাল ৪.১৫ টায়

পূর্ণিমা শেষ হবে - ৮ নভেম্বর, 2022 বিকাল ৪.৩১ টায়

কার্তিক পূর্ণিমায় কি করবেন?

ভগবান বিষ্ণুর আশীর্বাদ পাওয়ার জন্য কার্তিক পূর্ণিমার তিথি বিশেষ। এই দিনে লোকেরা ভগবান বিষ্ণুর আশীর্বাদ পাওয়ার জন্য পূজা করে। এর পাশাপাশি তারা এই দিনে পবিত্র নদীতে স্নানও করে।

কার্তিক পূর্ণিমার দিন হাতে কুশ নিয়ে স্নান করা শুভ বলে মনে করা হয়। এটা বিশ্বাস করা হয় যে এই দিনে স্নান করলে সৌভাগ্য হয়। এই কারণেই মানুষ এই দিনে পবিত্র নদীতে কুশ স্নান করে।

কার্তিক পূর্ণিমার দিনে তুলসী গাছে জল দেওয়া এবং প্রদীপ জ্বালানো শুভ বলে মনে করা হয়। কার্তিক পূর্ণিমার দিন তুলসীর কাছে একটি প্রদীপ জ্বালান এবং তুলসী মূলের মাটি কপালে তিলক হিসাবে লাগাতে হবে। বিশ্বাস করা হয় যে এটি করলে মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদও পাওয়া যায়।

ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে, কার্তিক মাসের পূর্ণিমা তিথিতে ভগবান শিবের পূজা করাও অত্যন্ত শুভ। বিশ্বাস করা হয় যে এই দিনে ভগবান শিবের আরাধনা করলে ভক্তদের মনস্কামনা পূরণ হয়। এমন অবস্থায় কার্তিক পূর্ণিমার দিন ভগবান শিবকে দুধ, দই, ঘি, চিনি, মধু, গঙ্গাজল ও বেলপত্র দিয়ে অভিষেক করুন। এটা বিশ্বাস করা হয় যে এটি করলে ভগবান শিব প্রসন্ন হন।

 

বন্ধ করুন