বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > বুধবার পৌষ অমাবস্যা, জানুন পিতৃপুরুষদের আশীর্বাদ লাভের জন্য কী করবেন
অমাবস্যার দিনে সন্ধে নাগাদ বাড়ির ঈষাণ কোণে পুজোর স্থানে গাওয়া ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালানো উচিত।
অমাবস্যার দিনে সন্ধে নাগাদ বাড়ির ঈষাণ কোণে পুজোর স্থানে গাওয়া ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালানো উচিত।

বুধবার পৌষ অমাবস্যা, জানুন পিতৃপুরুষদের আশীর্বাদ লাভের জন্য কী করবেন

  • অমাবস্যার দিন পিতৃপুরুষদের স্মরণ করে অশ্বত্থ গাছে গঙ্গাজল, কালো তিল, চাল, চিনি, জল ও ফুল অর্পণ করা উচিত।

১৩ জানুয়ারি পৌষ অমাবস্যা। হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী, পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষের শেষ তিথি হল পৌষ অমাবস্যা। এ দিন দান-স্নানের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। এমন করলে পুণ্যফল লাভ করা যায়। পিতৃপুরুষদের আত্মার শান্তির জন্য এদিন বিশেষ উপায় করা হয়।

  • অমাবস্যার দিন পিতৃপুরুষদের স্মরণ করে অশ্বত্থ গাছে গঙ্গাজল, কালো তিল, চাল, চিনি, জল ও ফুল অর্পণ করা উচিত। এ সময় ‘ওম পিতৃভ্য নমঃ’ মন্ত্র জপ করা উচিত। এর ফলে পূর্বপুরুষদের আশীর্বাদ লাভ সম্ভব।
  • ক্ষুধার্তদের পায়েস বিতরণ করুন। আবার পিঁপড়েকে চিনি মেশানো আটা খাওয়ান। এমন করেল পাপমুক্তি হয়।
  • অমাবস্যার দিন সকালে স্নানের পর আটার গুলি তৈরি করে পুকুর বা নদীতে মাছকে খাওয়ান। এর ফলে সমস্যা থেকে নিস্তার পাওয়া যায়।
  • কালসর্প দোষ থাকলে রুপোর সাপের পুজো করে নদীতে প্রবাহিত করুন। কোষ্ঠি থেকে কালসর্প দোষ দূর হয় এর ফলে।
  • পিতৃপুরুষদের আশীর্বাদ লাভের জন্য ব্রাহ্মণদের বাড়িতে ডেকে ভোজন করান ও দক্ষিণা দিন।
  • পৌষ অমাবস্যার দিন, গোরু, কুকুর, কাককে খাবার খাওয়ান। অমাবস্যার দিন কালো কুকুরকে তেলে তৈরি রুটি খাওয়ালে শত্রু ভয় দূর হয়। 
  • অমাবস্যার দিনে সন্ধে নাগাদ বাড়ির ঈষাণ কোণে পুজোরস্থানে গাওয়া ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালানো উচিত। এমন করলে সমস্ত সুখ লাভ সম্ভব হয়। এদিন অবশ্যই তুলসীর পরিক্রমা করবেন।

বন্ধ করুন