জ্যোতিষশাস্ত্রে হস্তরেখা গণনার মাধ্যমে ব্যক্তির সুখ-সমৃদ্ধি, উন্নতি সম্পর্কে ধারণা করা যায়।
জ্যোতিষশাস্ত্রে হস্তরেখা গণনার মাধ্যমে ব্যক্তির সুখ-সমৃদ্ধি, উন্নতি সম্পর্কে ধারণা করা যায়।

হস্তরেখা চিনুন, জেনে নিন উন্নতি ও সমৃদ্ধির ৫টি লক্ষণ

  • হাতের বিভিন্ন চিহ্ন এবং আকৃতি দেখে ব্যক্তিবিশেষের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন হয়।

জ্যোতিষশাস্ত্রে হস্তরেখা গণনার মাধ্যমে ব্যক্তির সুখ-সমৃদ্ধি, উন্নতি সম্পর্কে ধারণা করা যায়। এক্ষেত্রে হাতের বিভিন্ন চিহ্ন এবং আকৃতি দেখে ব্যক্তিবিশেষের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন হয়।

১) ভাগ্যরেখা ব্যক্তির ভাগ্য নির্ধারণ করে। এই রেখা যদি হাতের শেষ ভাগ অর্থাৎ মণিবন্ধ থেকে শুরু হয়ে শনি পর্বতে গিয়ে শেষ হয়, তাহলে এমন ব্যক্তি অত্যন্ত ভাগ্যশালী। তিনি জীবনের প্রতিটি সুখ লাভ করেন। চাকরি ব্যবসায় সব সময় উন্নতি করেন।

২) হাতের আঙুল ব্যক্তির ভাগ্য জানান দেয়। কোনও ব্যক্তির হাত ভারি, আঙুল কোমল এবং লম্বা হলে, এমন ব্যক্তি অর্থবান হন।

৩) মধ্যমা অঙ্গুলির নীচে শনি পর্বতের অবস্থান। এই পর্বত যদি উঠে থাকে, তাহলে অত্যন্ত শুভ মনে করা হয়। এমন ব্যক্তি অর্থবান হন এবং তার মান-সম্মানের কখনও হানি হয় না।

৪) মধ্যমা অঙ্গুলির নীচে যেখানে শনি পর্বতের অবস্থান, সেখানে যদি দুটি লম্বা রেখা দেখা দেয়, তাহলে এমন ব্যক্তির জীবনে কখনও কোনও অভাব থাকে না।

৫) হাতে ত্রিকোণাকৃতি চিহ্ন থাকলে, সেই ব্যক্তি অত্যন্ত সমৃদ্ধশালী হন।

বন্ধ করুন