বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Gomed benefits : এই রত্ন পরিধান করলে ভাগ্য হবে উজ্জ্বল, পেতে পারেন কঠিন রোগ থেকে মুক্তি

Gomed benefits : এই রত্ন পরিধান করলে ভাগ্য হবে উজ্জ্বল, পেতে পারেন কঠিন রোগ থেকে মুক্তি

গোমেদ রাহু গ্রহের রত্ন।    

Gomed : কোন রাশির জাতক জাতিকারা এই রত্নটি পরতে পারে ? কীভাবে এই রত্ন পরা উচিত ? এতে কী উপকার পাওয়া যায়? জেনে নিন এখান থেকে।

রাহু গ্রহের খারাপ প্রভাব এড়াতে জ্যোতিষীরা গোমেদ রত্ন পরার পরামর্শ দেন। এই পাথরটি পরিধান করলে অচল কাজ সম্পন্ন হয় এবং জীবনের সর্বক্ষেত্রে সাফল্য অর্জিত হয়।

গোমেদ রাহু গ্রহের রত্ন। এই রত্নটি দেখতে খুবই সুন্দর। গোমেদ রত্ন পাথর লালচে বাদামী রঙের। এটা খুবই চকচকে। গোমেদ রত্ন পাথর সহজেই ভারত, ব্রাজিল এবং শ্রীলঙ্কায় পাওয়া যায়। রাহু গ্রহের খারাপ প্রভাব এড়াতে জ্যোতিষীরা গোমেদ রত্ন পরার পরামর্শ দেন। এই পাথরটি পরিধান করলে অচল কাজ সম্পন্ন হয় এবং জীবনের সর্বক্ষেত্রে সাফল্য অর্জিত হয়। গোমেদ রত্ন পরিধান করলে ব্লাড ক্যান্সার, চোখ ও জয়েন্টের ব্যথার মতো সমস্যা থেকে চিরতরে মুক্তি পাওয়া যায়। প্রবাল এবং পোখরাজ কখনোই গোমেদ রত্ন পাথরের সাথে পরা উচিত নয়।

কার গোমেদ রত্ন পরা উচিত- জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে মিথুন, বৃষ, কন্যা, তুলা এবং কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকাদের গোমেদ পরা উচিত। গোমেদ রত্নপাথর সর্বদা রূপার আংটিতে পরা উচিত। এই পাথরের যেমন উপকারিতা আছে তেমনই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও আছে। আপনার রাশিচক্র এবং রাশিফল ​​অনুযায়ী রত্ন পাথর পরার আগে জ্যোতিষীর পরামর্শ নিন। রাজনীতিতে কেরিয়ার তৈরি করা লোকেরা গোমেদ পরে প্রচুর সুবিধা পান।

কার গোমোদ রত্ন পরা উচিত নয়- জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে রাহু কুণ্ডলীতে ৫ম, ৮ম, ৯ম, ১১ম এবং ১২ম স্থানে থাকলে এই ধরনের ব্যক্তিদের জীবনে কখনও গোমেদ রত্ন পরা উচিত নয়। অন্যথায় এটির খুব বিপরীত ফলাফল হতে পারে। ব্যবসাতেও বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

(উপরোক্ত তথ্য ধর্মীয় আস্থা ও লৌকিক মান্যতার উপর আধারিত)

 

 

 

বন্ধ করুন