বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > রত্ন ধারণে অনীহা? নিউমেরোলজি বলে দেবে উন্নতির পথ
১ থেকে ৯ পর্যন্ত প্রত্যেক সংখ্যার সঙ্গে এক একটি গ্রহকে বিচার করা হয়।
১ থেকে ৯ পর্যন্ত প্রত্যেক সংখ্যার সঙ্গে এক একটি গ্রহকে বিচার করা হয়।

রত্ন ধারণে অনীহা? নিউমেরোলজি বলে দেবে উন্নতির পথ

  • সংখ্যাতত্ত্বের সাহায্যে গ্রহের পজিটিভ এনার্জি বিচার করা হয় এবং সেই অনুযায়ী কাজ করলে উন্নত জীবনযাপনের পাশাপাশি কেরিয়ারে উন্নতি ঘটানো যায়।

 

জ্যোতিষশাস্ত্রের অপর একটি অংশ সংখ্যাতত্ত্ব বা নিউমেরোলজি। এই গণনা পদ্ধতিতে ১ থেকে ৯ পর্যন্ত প্রত্যেক সংখ্যার সঙ্গে এক একটি গ্রহকে বিচার করা হয় এবং সেই গ্রহ অনুযায়ী সম্পর্কিত ব্যক্তির ব্যবহার, ব্যক্তিত্ব ও ভবিষ্যৎ নির্ণয় করা হয়। 

সংখ্যাতত্ত্বের সাহায্যে গ্রহের পজিটিভ এনার্জি বিচার করা হয় এবং সেই অনুযায়ী কাজ করলে উন্নত জীবনযাপনের পাশাপাশি কেরিয়ারে উন্নতি ঘটানো যায়। 

অনেকেই রত্ন ধারণ করতে চান না। তাঁদের ক্ষেত্রে সংখ্যাতত্ত্বের সাহায্যে গ্রহের পজিটিভ এনার্জি নিজের মধ্যে সঞ্চার করা সম্ভব।

এ ক্ষেত্রে জরুরি ভাগ্যাঙ্ক নির্ণয়। কোনও ব্যক্তির সম্পূর্ণ জন্মতারিখের যোগফল তাঁর ভাগ্যাঙ্ক। অর্থাৎ কোনও ব্যক্তির জন্মতারিখ যদি ১৪ জানুয়ারি ২০১২ হয়ে থাকে, তা হলে তাঁর ভাগ্যাঙ্ক হবে ১৪.০১.২০১২ এর যোগফল। অর্থাৎ ১+৪+১+২+০+১+২= ১১। আবার এই ১১ কেও যোগ করতে হবে। সে ক্ষেত্রে ১+১= ২ হবে সেই ব্যক্তির ভাগ্যাঙ্ক।

জেনে নেওয়া যাক ১ থেকে ৯ পর্যন্ত ভাগ্যাঙ্ক অনুযায়ী কোন কোন নিয়ম পালন করলে জীবনে উন্নতির পথ প্রশস্ত হয়।

ভাগ্যাঙ্ক ১ সূর্যের প্রতীক। যাঁদের ভাগ্যাঙ্ক ১ তাঁরা প্রতিদিন সূর্য দর্শন করুন, সূর্যকে অর্ঘ্য দিন এবং তার রশ্মিতে বসুন।

ভাগ্যাঙ্ক ২ চন্দ্রের প্রতীক। এই সংখ্যার ব্যক্তি পূর্ণিমার রাতে কিছুক্ষণ চাঁদের রশ্মিতে বসুন এবং পজিটিভ চিন্তা ভাবনা করুন।

ভাগ্যাঙ্ক ৩ বৃহস্পতির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। এই সংখ্যার ব্যক্তি কুসঙ্গ থেকে দূরে থাকুন। নিজের রিডিং হ্যাবিট বাড়ান। আবার বৃহস্পতির মতোই অন্যের ভালো করার কথা ভাবুন এবং অন্যের সঙ্গে সঙ্গে নিজের উন্নতি ঘটান।

ভাগ্যাঙ্ক ৪ রাহুর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। এই সংখ্যার ব্যক্তিরা গণেশের পুজো করুন।

ভাগ্যাঙ্ক ৫ বুধের সংখ্যা। এটি স্থায়িত্ব এবং বুদ্ধিমত্তার দিকে ইঙ্গিত করে। বুধের পজিটিভ এনার্জি অনুভব করার জন্য সবুজ শাকসবজি বেশি করে খান, সেই সঙ্গে এমন গাছ লাগান যারা আয়ু লম্বা। যেমন বট অশ্বত্থ ইত্যাদি।

ভাগ্যাঙ্ক ৬ শুক্রের সংখ্যা। একে স্ত্রী-প্রধান গ্রহ বলা হয়। এক্ষেত্রে মহিলাদের সম্মান করুন এবং তাঁদের আনন্দে রাখুন। তাঁদের আশীর্বাদই আপনার উন্নতির পথ প্রশস্ত করবে। কিশোরীদের উপহার দিলে শুক্রের পজেটিভ এনার্জি লাভ করা যায়।

ভাগ্যাঙ্ক ৭ কেতুর সংখ্যা। এমন ব্যক্তি মস্তিষ্কের চেয়ে মনের কথা বেশি শুনে থাকেন। আপনি গণেশের পুজো করুন। আধ্যাত্মিকতার দিকে ঝোঁক বাড়লে, সেটিকে আপন করে নিন।

ভাগ্যাঙ্ক ৮ শনির সংখ্যা। নিয়ম-নীতি, অনুশাসনের আওতায় থেকেই কাজ করার কথা বলে এই সংখ্যা। এমন ব্যক্তি নিজের অধীনস্থ কর্মচারীদের দুঃখী করবেন না, তাঁদের পরিশ্রমের যথাযথ ফল দেবেন।

ভাগ্যাঙ্ক ৯ মঙ্গলের সংখ্যা। এমন ব্যক্তি অত্যধিক রাগী হন। ভোজনে ঠান্ডা পদার্থ বেশি করে খান। সব সময় বসে শান্তিতে জল পান করুন। রাগের সময় ধীরে ধীরে জল পান করুন।

বন্ধ করুন