বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > অধিকমাসে রাশি মেনে দান করলে মেলে পুণ্য
মালপোয়া দান করলে শুভ ফল পাওয়া যায়।
মালপোয়া দান করলে শুভ ফল পাওয়া যায়।

অধিকমাসে রাশি মেনে দান করলে মেলে পুণ্য

  • অধিকমাসে রাশি অনুযায়ী দান করলে কুষ্ঠিতে উপস্থিত গ্রহদোষ দূর করা যেতে পারে।

অধিকমাসে দরিদ্রদের ধন-অন্ন দান করা শুভ মনে করা হয়। শাস্ত্র অনুযায়ী, পুরুষোত্তম মাসে যে ব্যক্তি ব্রত, উপবাস, পুজো, দান ইত্যাদি করে, সে ও তাঁর সমগ্র পরিবার বিষ্ণুর আশীর্বাদ লাভ করে। অধিকমাসে রাশি অনুযায়ী দান করলে কুষ্ঠিতে উপস্থিত গ্রহদোষ দূর করা যেতে পারে। জানুন, কোন রাশির জাতকরা কী দান করতে পারে—

মেষ- রুপো, লাল কাপড়, বেদানা, মালপোয়া, ঘী, কলা, সোনা, তামা ও গম।

বৃষ- মুক্তো, গাড়ি, সাদা বস্ত্র, মালপোয়া, খোয়াক্ষীর, রুপো, সোনা, চিনি, গোরু, হীরে, চাল, কলা।

মিথুন- কঙ্কন, সিঁদূর, শাড়ি, মূর্তির জন্য ছত্র, পান্না, মুগ ডাল, সোনা, তেল, কলা, আপেল, মালপোয়া, কাঁসার বাসন।

কর্কট- মালপোয়া, খোয়াক্ষীর, দুধ, চিনি, চাল, মুক্তো, সাদা কাপড়, জলছত্রের জন্য কলসি, তেল, সোনা, গোরু।

সিংহ- ধর্মীয় পুস্তক, লাল কাপড়, সোনা, রুপো, তামা, পিতল, গম, বেদানা, আপেল, মুসুর ডাল, মাণিক্য।

কন্যা- তেল, কলা, আপেল, মুগ ডাল, সোনা, ছাতা, গৌশালায় ধন ও ঘাস।

তুলা- চিনি, সাদা কাপড়, চাল, কলা, মালপোয়া ও খোয়াক্ষীর।

বৃশ্চিক- মৌসুমী ফল, বেদানা, ঘী, লাল কাপড়, তামা।

ধনু- কাঠের জিনিস, হলুদ কাপড়, তিল, অন্ন, দুধ, ছোলার ডাল, ঘী।

মকর ও কুম্ভ- তেল, ওষুধ, কলা, যন্ত্রপাতি, নীল কাপড়, লোহা, মৌসুমী ফল।

মীন- ছোলার ডাল, ঘী, দুধ, হলুদ কাপড়, দুধ দিয়ে তৈরি মিষ্টি, শিক্ষার সামগ্রী।

বন্ধ করুন