বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > রোজগার, জন আক্রোশ, যুদ্ধ - জ্যোতিষীরা জানাচ্ছেন কেমন কাটবে ২০২১ সাল
২০২১-এর সূচনা হয়েছে কন্যা লগ্ন ও কর্কট রাশিতে।
২০২১-এর সূচনা হয়েছে কন্যা লগ্ন ও কর্কট রাশিতে।

রোজগার, জন আক্রোশ, যুদ্ধ - জ্যোতিষীরা জানাচ্ছেন কেমন কাটবে ২০২১ সাল

  • জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী, ভারতের কোষ্ঠি বৃষভ লগ্নের। লগ্নে রাহু বিরাজমান ও সপ্তম স্থানে কেতু অবস্থান করছে।

করোনাভাইরাস জর্জরিত ২০২০ সালের পর আশার আলো নিয়ে আগমন ঘটেছে ২০২১ সালের। জ্যোতিষ মতে, ভারতের কোষ্ঠি বিচার করে জানা যেতে পারে, দেশের জন্য ২০২১ সাল কেমন যাবে।

১৫ অগস্ট, ১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীনতা লাভ করেছিল। দিল্লি ভারতের জন্মস্থান হিসেবে গণ্য। জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী, ভারতের কোষ্ঠি বৃষভ লগ্নের। লগ্নে রাহু বিরাজমান ও সপ্তম স্থানে কেতু অবস্থান করছে। তৃতীয় অর্থাৎ পরাক্রমের স্থানে চন্দ্র বিরাজমান। এ ছাড়া, বুধ, শুক্র, শনি ও সূর্য পঞ্চগ্রহী যোগ সৃষ্টি করছে। অন্য দিকে শুক্র ও শনি অস্ত গিয়েছে। 

ভারতের জন্য কেমন যাবে ২০২১ সাল?

২০২১ সালের সূচনা হয়েছে কন্যা লগ্ন ও কর্কট রাশিতে। ১৪ জানুয়ারি সূর্য ও শনি একই রাশি অর্থাৎ মকরে বিরাজ করবে। এ সময় ভারতের উন্নতির উৎকৃষ্ট সময় শুরু হতে পারে। ২০ নভেম্বর নবম স্থানে থাকবে বৃহস্পতি, ফলে ভারতের পরিস্থিতি আরও উন্নত হবে। বছরের মধ্যভাগ পর্যন্ত প্রাণঘাতী অতিমারী থেকে স্বস্তি পাওয়া যেতে পারে। স্কুল, কলেজ, অফিস পূর্ণ রূপে চালু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সরকারের তরফে কৃষকদের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে।

২০২১-এ শনির স্থিতি ভালো থাকবে। যার ফলে উপযুক্ত পরিমাণে বৃষ্টির কারণে ভালো ফসল হবে। কিন্তু এ সময় চিন, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যু্দ্ধের সম্ভাবনাও রয়েছে। তবে বাকি দেশ ভারতের সমর্থনে থাকবে। রোজগারের ক্ষেত্রে বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। বছরের মধ্যভাগে ব্যবসায়ীরা স্বস্তি পেতে পারেন। 

তবে নববর্ষের পরিকল্পনা কিছুটা দেরিতে কার্যকরী হবে। কিন্তু বছরের মধ্যভাগে মূল্যবৃদ্ধি থেকে স্বস্তি মিলতে পারে। 

অন্য দিকে ৭২তম গণতন্ত্র দিবসের বর্ষলগ্নের কোষ্ঠি বিচার করে আরও বিষদে ভারতের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানা যেতে পারে। ৭২তম গণতন্ত্র দিবসের বর্ষলগ্নের কোষ্ঠি মিথুন লগ্নের ও মুন্থা ভাগ্য স্থানের কুম্ভ রাশিতে গোচর করছে। কোষ্ঠির লগ্নেই চন্দ্র বিরাজমান। ষষ্ঠ স্থানে কেতু, সপ্তমে শুক্র ও সূর্য, অষ্টমে বৃহস্পতি ও শনির গোচর পরিলক্ষিত। মুন্থা ও বুধ নবম, মঙ্গল একাদশ ও রাহু দ্বাদশ স্থানে বিরাজমান।

যুবকদের জন্য বছর ভালো- বর্ষ লগ্নের অধিপতি বুধ ও মুন্থার ভাগ্য স্থানে গোচর দেশের জনগণের জন্য শুভ। তবে বিদ্যার্থী ও প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অবতীর্ণ হওয়া যুবক-যুবতীদের জন্য এই গোচর কোনও আশীর্বাদের চেয়ে কম নয়। বিদেশে পড়াশোনার চেষ্টায় থাকলে, তাঁরাও সাফল্য লাভ করবেন।

অসাধারণ থাকছে এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর- ৬ এপ্রিল থেকে ১৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বৃহস্পতিও ভাগ্য স্থানে গতিশীল থাকবেন, তিনি ব্যবসারও অধিপতি। ফলস্বরূপ ভারতের রফতানি ব্যবসার গতির পাশাপাশি বিদেশি কোম্পানির আগমনও বাড়বে। শুক্রও সপ্তম কেন্দ্র স্থানে গোচর করছেন, যিনি সমৃদ্ধি, বিলাসবহুল জীবন, সৃজন ও সুখ-সৌভাগ্যের অধিপতি। শুক্রের শুভ প্রভাবের ফলে জনগণ নিজের পরিশ্রমের ভিত্তিতে আয়ের সুযোগ সৃষ্টি করবে, যা সফল হবে। ২০২১-এ চাকরির সুযোগের অভাব থাকবে না।

এই গ্রহ রোজগার ও ব্যবসার জন্য শুভ- কোষ্ঠির লাভ স্থানে অধিপতি মঙ্গল স্বয়ং স্বরাশি মেষে বিরাজ করছেন। তার প্রভাবে জনগণের আর্থিক পরিস্থিতি অত্যধিক মজবুত হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। মঙ্গল, বুধ, বৃহস্পতি, শুক্র এবং কেতু ২০২১-এ রোজগার প্রদানকারী গ্রহ। তাই এই গ্রহের প্রভাব ক্ষেত্রে অত্যধিক রোজগারের সুযোগ পাওয়া যাবে। সেনা, পুলিশ, ফিল্ম উদ্যোগ, শিক্ষা, ব্যাঙ্কিং ও বীমা, অটো, টেলিকম, অ্যাভিয়েশন, হোটেল, ফার্মাসিউটিক্যাল, ই-কমার্স ও ভারী উদ্যোগে রোজগারের সর্বাধিক সুযোগ পাওয়া যাবে। এই সেক্টরগুলিতে আবেদনের সুযোগ হাত ছাড়া করবেন না।

এখনই সমাপ্ত হচ্ছে না জন আক্রোশ- কোষ্ঠিতে জনগণের কারক গ্রহ শনি ও রাহু অশুভ স্থানে গোচর করছে। শনি সমগ্র বছর অষ্টম ও রাহু দ্বাদশ স্থানে গোচর করবে। তাই জনমানস ও সরকারের মধ্যে বেশ কয়েকবার সংঘাত প্রত্যক্ষ করা যেতে পারে।

বন্ধ করুন