বাড়ি > ভাগ্যলিপি > ভূমি পুজোর জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ সময় মাত্র ৩২ সেকেন্ড, জানুন কী কারণে তা শুভ
ভূমি পুজো অনুষ্ঠানের সূচনা হবে ধনিষ্ঠা নক্ষত্রে এবং সমাপ্তি হবে শতভিষা নক্ষত্রে।
ভূমি পুজো অনুষ্ঠানের সূচনা হবে ধনিষ্ঠা নক্ষত্রে এবং সমাপ্তি হবে শতভিষা নক্ষত্রে।

ভূমি পুজোর জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ সময় মাত্র ৩২ সেকেন্ড, জানুন কী কারণে তা শুভ

  • ৫ অগস্ট অভিজিৎ মুহূর্তে রাম মন্দিরের ভূমিপুজো ও শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী। সেই শুভ মুহূর্তের মেয়াদ মাত্র ৩২ সেকেন্ড। 

৫ অগস্ট অভিজিৎ মুহূর্তে রাম মন্দিরের ভূমি পুজো ও শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ দিন ভূমি পুজোর জন্য ৩২ সেকেন্ডের অভিজিৎ মুহূর্ত বিশেষ গুরত্ব বহন করে। দুপুর ১২টা ৪৪ মিনিট ৮ সেকেন্ড থেকে শুরু করে ১২টা ৪৪ মিনিট ৪০ সেকেন্ডের মধ্যে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনিবার্য। 

জ্যোতিষ অনুযায়ী অভিজিৎ মুহূর্তের গুরুত্ব:

হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী সূর্যোদয় থেকে শুরু করে সূর্যাস্ত পর্যন্ত ৩০ ধরণের মুহূর্ত হয়। অভিজিৎ মুহূর্ত এই ৩০টি মুহূর্তের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ। এই সময় যে কোনও কাজই সফল হয়। অভিজিৎ মুহূর্ত প্রত্যেক দিন দুপুরে প্রায় ২৪ মিনিট আগে শুরু হয় ও মধ্যাহ্নে ২৪ মিনিট পর শেষ হয়।

৫ অগস্টের তিথির গুরুত্ব:

এ দিন একাধিক শুভ যোগ রয়েছে। ভূমি পুজো অনুষ্ঠানের সূচনা হবে ধনিষ্ঠা নক্ষত্রে এবং সমাপ্তি হবে শতভিষা নক্ষত্রে। অভিজীত অথবা চক্রসুদর্শন মুহূর্তে রাম জন্ম গ্রহণ করেন। রামচরিত মানসে বলা হয়েছে, 

নবমী তিথি মধুমাস পুনীতা।

সুকল পক্ষ অভিজীত হরিপ্রীতা।।

মধ্যদিবস অতিশীত ন ঘামা।

পাবন কাল লোক বিশ্রামা।।

উল্লেখ্য, রামের জন্ম দুপুর ১১টা ৩৬ মিনিট থেকে ১২টা ২৪ মিনিটের মধ্যে হয়েছিল।

আদিকালে বিশ্বকর্মা এই মুহূর্তে সূর্যের অতিশয় তেজের সাহায্যে শিবের ত্রিশূল, বজ্র ও সুদর্শন চক্র নির্মাণ করেন। আজও এই মুহূর্তকে সর্বশ্রেষ্ঠ মনে করা হয়। এর মধ্যে যে কাজই করা হোক না কেন, তা কখনো অসফল হয় না। তাই রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ৫ অগস্ট দুপুরে চক্র সুদর্শন মুহূর্তই শ্রেষ্ঠ।

তবে এই মুহূর্তও বিতর্কে ঘিরে ছিল। শ্রী রামজন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের অনুরোধের ভিত্তিতে কাশীর প্রখ্যাত বিদ্বান পণ্ডিত গণেশ্বর শাস্ত্রী দ্রাবিড় ভূমি পুজোর মুহূর্ত বার করেন। একাধিক জ্যোতিষাচার্যদের মতে, এই মুহূর্ত শুভফলদায়ী নয়। এর পর পণ্ডিত দ্রাবিড় তিথি-নক্ষত্র গণনার ভিত্তিতে বোঝান যে, ৫ অগস্ট কন্যালগ্নের স্থানে তুলালগ্নে শিলান্যাস হওয়া উচিত। সেদিন পূর্ণিমান্ত ভাদ্রপদ কষ্ণ ও অমান্ত শ্রাবণ কৃষ্ণ দ্বিতীয়া বুধবার পড়ছে। সকালে থাকছে ধনিষ্ঠা নক্ষত্র। অনন্তর শততারকা নক্ষত্র। কন্যা লগ্নে লগ্ন থেকে ষষ্ঠ স্থানে (কুম্ভে) চন্দ্র অবস্থিত ও কেন্দ্রে পাপগ্রহ (মঙ্গল, রাহু, শনি, কেতু) রয়েছে। মুহূর্ত পারিজাতে উল্লেখ আছে, ‘লগ্ন- ২, ৩, ৫, ৬, ৯, ১২ রাশি ও শুভগ্রহ দৃষ্ট- যুত লগ্ন। যখন তৃতীয়, ষষ্ঠ, একাদশ স্থানে পাপগ্রহ থাকে, শুভ গ্রহ অষ্টম ও দ্বাদশ স্থান ছাড়া অন্যত্র থাকে, দশম স্থানে সবল সৌম্য গ্রহ থাকে ও চন্দ্র প্রথম, ষষ্ঠ, অষ্টম ও দ্বাদশ স্থানে না-থাকে।‘ এর পাশাপাশি জ্যোতির্বিদাভরণে উল্লেখ আছে, যদি গৃহারম্ভের সময় সপ্তম স্থান দুষ্ট গ্রহ যুক্ত হয়, তা হলে অহংকারের অভ্যুদয়ে গৃহকলহের সৃষ্টি হয়। 

কন্যা লগ্নে, লগ্ন থেকে সপ্তমে মঙ্গলের উপস্থিতি জ্যোতির্বিদাভরণানুসার কলহকারক হওয়ায় ৫ অগস্ট কন্যালগ্নের মুহূর্ত দেওয়া হয়নি। সেদিন মন্দির নির্মাণের মুহূর্তের জন্য তুলালগ্নের চয়ন করা হয়েছে। আচার্য ৫ অগস্টের তিথির ক্ষেত্রে ভূশয়ন, চন্দ্রের পাতাল নিবাস, ষোড়শবর্গ ইত্যাদির পরিস্থিতিও স্পষ্ট করেন।

বৈভবকারী এই অভিজিৎ মুহূর্ত:

জ্যোতিষ মতে, অভিজিৎ মুহূর্তে ভূমিপুজো অত্যন্ত বৈভবকারী। এই মুহূর্তে যে কাজই করা হোক না কেন, তাতে সাফল্য লাভ হয়। ১৫টি মুহূর্তের মধ্যে অভিজিৎ মুহূর্ত অষ্টম স্থানে। জ্যোতিষ শাস্ত্রে এ-ও বলা হয়েছে, ২৮তম নক্ষত্র অভিজিৎ নক্ষত্র। এই নক্ষত্র সমস্ত কাজের জন্যই শুভ। ৫ অগস্ট ভাদ্রপদ মাসে সিংহ রাশিতে সূর্য থাকবে। যার ফলে এই মুহূর্ত আরও বেশি ফলদায়ী।

ভূমির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত ধনিষ্ঠা নক্ষত্র:

ধনিষ্ঠা নক্ষত্রের অধিপতি মঙ্গল, যিনি ভূমির কারক গ্রহ। ধনিষ্ঠা নক্ষত্রে ভূমি পুজো অনুষ্ঠানের সূচনা হবে। বসু এই নক্ষত্রের দেবতা। তিনি বিষ্ণু ও ইন্দ্রের রক্ষক। ২৭টি নক্ষত্রের মধ্যে ধনিষ্ঠা ২৩তম। কোনও কোনও জ্যোতিষ মতে এই নক্ষত্র শিব ও কৃষ্ণের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত।

শতভিষা নক্ষত্রের গুরুত্ব:

ভূমি পুজোর অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে শতভিষা নক্ষত্রে। জ্যোতিষ মতে, এই নক্ষত্র ১০০টি অভিলাষা পূর্ণ করে। 

৫ অগস্টের সংযোগ:

৫ অগস্টে পাঁচের বিশেষ সংযোগ তৈরি হচ্ছে। এদিন মন্দিরের মুখ্য পুজো হবে। অঙ্ক জ্যোতিষে পাঁচ অঙ্ককে বুধ গ্রহের কারক মনে করা হয়। জ্যোতিষ শাস্ত্রে বুধকে শুভ গ্রহ মনে করা হয়। এই গ্রহ সুখ-সমৃদ্ধির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। রাম মন্দিরে ৫টি শিখরের নির্মাণ হবে। আবার ভূমি পুজোর সময় পাঁচটি রুপোর ইট রাখা হবে।

বন্ধ করুন