বাড়ি > ভাগ্যলিপি > পিতৃপক্ষে অবশ্যই দান করুন এই ৭ দ্রব্য, মিলবে শান্তি মিটবে কলহ
কালো তিল- শ্রাদ্ধে অবশ্যই কালো তিল দান করা উচিত।
কালো তিল- শ্রাদ্ধে অবশ্যই কালো তিল দান করা উচিত।

পিতৃপক্ষে অবশ্যই দান করুন এই ৭ দ্রব্য, মিলবে শান্তি মিটবে কলহ

  • ধর্মীয় ধ্যান-ধারণা অনুযায়ী পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনার জন্য শ্রাদ্ধে দান-পুণ্য করা হয়। শাস্ত্র মতে, পিতৃপক্ষে এই সাতটি জিনিস অবশ্যই দান করা উচিত।

পিতৃপক্ষে পূর্বপুরুষদের তর্পণের জন্য দান-পুণ্য ও অন্যান্য ধরণের কাজ করা হয়। ধর্মীয় ধ্যান-ধারণা অনুযায়ী পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনার জন্য শ্রাদ্ধে দান-পুণ্য করা হয়। শাস্ত্র মতে, পিতৃপক্ষে এই সাতটি জিনিস অবশ্যই দান করা উচিত। এগুলি হল—

১. কালো তিল- শ্রাদ্ধে অবশ্যই কালো তিল দান করা উচিত। এর ফল পূর্বপুরুষ ও দাতা উভয়ই লাভ পেয়ে থাকেন। শাস্ত্র মতে, এই সময় পূর্বপুরুষদের তর্পণের জন্য যে কোনও জিনিসই দান করা হোক না-কেন, সে সময় হাতে কালো তিল নিয়ে দান করা উচিত। কালো তিল বিষ্ণুর প্রিয়। এটিকে শনির প্রতীকও মনে করা হয়।

২. রুপো- রুপোর যে কোনও বস্তুই দান করা উচিত। এর ফলে পূর্বপুরুষদের আত্মা শান্তি লাভ করে ও আশীর্বাদ দেন। এর ফলে ব্যক্তির জীবনে সুখ-সমৃদ্ধির আগমন ঘটে। পুরাণ মতে, চাঁদের ওপরের অংশে পূর্বপুরুষদের বাস। রুপো চাঁদের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। তাই শ্রাদ্ধে রুপো, চাল ও দুধে তাঁরা প্রসন্ন হন।

৩. বস্ত্র- শ্রাদ্ধে যাঁরা পূর্বপুরুষদের উদ্দেশে কাপড় দান করেন, তাঁদের ওপর পূর্বপুরুষের আশীর্বাদ সব সময় থাকে। শ্রাদ্ধে ধুতি ও ওড়নার দান শুভ মনে করা হয়। গরুড় পুরাণ অনুযায়ী, আমাদের মতোই পূর্বপুরুষদের আত্মার ওপরও আবহাওয়া পরিবর্তন প্রভাব ফেলে। এমন পরিস্থিতিতে তাঁরা বস্ত্রের কামনা করেন।

৪. গুড় ও নুন- শ্রাদ্ধের সময় অবশ্যই এই দুই বস্তুর দান করা উচিত। শাস্ত্র মতে, নুন দান করলে যমের ভয়ও দূর হয়। পারিবারিক কলহ দূর করার জন্য শ্রাদ্ধে এ সমস্ত বস্তু দান করা উচিত।

৫. জুতো-চটি- শ্রাদ্ধে গরিবদের জুতো-চটি দান করা শুভ মনে করা হয়।

৬. ছাতা- ছাতা দান করলে, পরিবারে সুখ-শান্তি ও আনন্দ আসে। এর ফলে পূর্বপুরুষদের আত্মাও তৃপ্ত হয়।

৭. জমি- বর্তমানে ভূমি দান খুব একটা সম্ভব নয়। তবে এমন মনে করা হয়, শ্রাদ্ধের সময় পিতৃপুরুষদের আত্মার শান্তির জন্য অবশ্যই ভূ-দান করা উচিত। শাস্ত্র অনুযায়ী ভূ-দান সর্বোচ্চ দান।

বন্ধ করুন