বাড়ি > ভাগ্যলিপি > সন্ধেবেলা এই কাজে রুষ্ট হন লক্ষ্মী, জীবনে ঘনায় ঘোর অনটন
যে বাড়িতে মহিলাদের অপমান হয়, সেখানে লক্ষ্মী বাস করেন না।
যে বাড়িতে মহিলাদের অপমান হয়, সেখানে লক্ষ্মী বাস করেন না।

সন্ধেবেলা এই কাজে রুষ্ট হন লক্ষ্মী, জীবনে ঘনায় ঘোর অনটন

  • লক্ষ্মী সন্তুষ্ট হলে যেমন ব্যক্তিকে ধন-বৈভবের আশীর্বাদ দেন। তেমনই তিনি অসন্তুষ্ট থাকলে অভাব-অনটনের মুখোমুখিও হতে হয়।

লক্ষ্মীকে খুশি করার জন্য তাঁর পূজার্চনা করা হয়। এতে প্রসন্ন হয় তিনি ধন-বৈভবের আশীর্বাদ দেন। তবে তিনি অসন্তুষ্ট থাকলে ব্যক্তিকে অভাব-অনটনের মুখোমুখিও হতে হয়। শাস্ত্রে মতে, সন্ধে বা রাতে কয়েকটি কাজ করলে লক্ষ্মী অসন্তুষ্ট হন। তাই এ ধরণের কাজ এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। এখানে জানুন কী এমন কাজ, যা লক্ষ্মীকে ক্ষুব্ধ করে তুলতে পারে—

১. মনে করা হয় যে, সন্ধে অথবা রাতে দুধ-দই দান করা উচিত নয়। এ সময় বাইরে থেকে কিনে বাড়িতে আনা যেতে পারে। তবে বাড়ি থেকে বার করে কাউকে দেওয়া উচিত নয়। এমন করলে লক্ষ্মী অপ্রসন্ন হন।

২. সকালে পুজোর আগে যেমন ঘর পরিষ্কার করতে হয়, তেমনই সন্ধে নাগাদ সূর্যাস্তের আগে ঘরে ঝাট দেওয়া উচিত। বিশেষত প্রবেশদ্বার কখনও নোংরা রাখতে নেই।

৩. রাতে রান্নাঘর পরিষ্কার করার পরই ঘুমোতে যাওয়া উচিত। রাতে বাড়িতে এঁটো বাসন জমিয়ে রাখা উচিত নয়। 

৪. কখনও অন্নের অসম্মান করা উচিত নয়। খাবার ফেলাও উচিত নয়। এর ফলে লক্ষ্মী অসন্তুষ্ট হন। এর ফলে জীবনে ধন-বৈভবের অভাব দেখা দেয়।

৫. যে বাড়িতে মহিলাদের অপমান হয়, সেখানে লক্ষ্মী বাস করেন না। 

৬. এ ছাড়া, সন্ধে নাগাদ মিষ্টি কিছু বানিয়ে লক্ষ্মীকে অর্পণ করা উচিত।

বন্ধ করুন