বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Unknown facts of Shree Ganesha: ভগবান গণেশের কিছু অজানা রহস্য কথা, বুধবার গণপতি পুজোর আগে জেনে নিন

Unknown facts of Shree Ganesha: ভগবান গণেশের কিছু অজানা রহস্য কথা, বুধবার গণপতি পুজোর আগে জেনে নিন

প্রভু গণেশ লাল রঙের ফুল পছন্দ করেন। 

Ganesha : বলা হয় যে সত্যিকারের ভক্তি সহকারে উপাসনা করলে, ভগবান গণেশ তাঁর ভক্তদের সমস্ত কষ্ট দূর করেন এবং তাদের জীবন সুখে পূর্ণ করেন। ভগবান গণেশের সম্পর্কে এমন কিছু গোপনীয় তথ্য যেগুলি অনেকের কাছে অজানা।

গণেশ ঠাকুরের দুই স্ত্রী ছিল

ভগবান গণেশের 'রিদ্ধি ও সিদ্ধি' নামে দুটি স্ত্রী রয়েছে, পাশাপাশি 'শুভ ও লাভ' নামে দুটি পুত্র রয়েছে।

অশোক সুন্দরী ছিলেন গণেশ ঠাকুরের  বোন। ধর্মীয় গ্রন্থেও বলা হয়েছে যে গণেশ ঠাকুরের  অশোক সুন্দরী নামে একটি বোন ছিল।

প্রিয় ফুল: প্রভু গণেশ লাল রঙের ফুল পছন্দ করেন।

প্রিয় বস্তু দূর্বা এবং ডাব

ভগবান গণেশ দূর্বা ঘাস পছন্দ করেন। গণেশ পূজায় ডাব ব্যবহার করা হয়।

গণেশ ঠাকুর মোদক পছন্দ করেন।

গণেশের পূজায়, যতক্ষণ না তাকে মোদক নিবেদন করা হয়, ততক্ষণ তার পূজা অসম্পূর্ণ বলে বিবেচিত হয়, কারণ এটি তার প্রিয় ভোগ।

ভগবান গণেশ শুধুমাত্র হিন্দু ধর্মেই নয়, বৌদ্ধ ধর্মেও পূজা করা হয়। বৌদ্ধ ধর্মে গণেশ বিনায়ক নামে পরিচিত। তিব্বত, চীন এবং জাপানের মতো দেশে গণপতির পূজা হয় খুব আড়ম্বরে।

গণপতির বড় কানের রহস্য হল তিনি সবার কথা শোনেন কিন্তু নিজের বুদ্ধি দিয়ে সিদ্ধান্ত নেন। বড় কানও ইঙ্গিত দেয় যে খারাপ জিনিস ত্যাগ করে আপনার কানে ভাল জিনিস রাখা উচিত।

গণপতির লম্বা কান দূর থেকে আসা কষ্টগুলোকে চিনে ফেলে, যার কারণে তিনি আগাম সঙ্কটের কথা জানতে পারেন।

একটি ভাঙা দাঁত তার জ্ঞানের প্রতীক হিসাবে বিবেচিত হয়।

ভগবান গণেশের দেহের দুটি রঙ রয়েছে, যার মধ্যে লাল রঙকে সমৃদ্ধির প্রতীক এবং সবুজ রঙকে শক্তির প্রতীক হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এ কারণে বলা হয় তার মধ্যে শক্তি ও সমৃদ্ধি রয়েছে।

বেদ ব্যাস যখন মহাভারতের রচনা শুরু করেন, তখন তিনি ভগবান গণেশকে মহাভারতের রচয়িতা হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। গণেশ ঠাকুর তার অনুরোধ মেনে নিলেন, কিন্তু একই সঙ্গে একটি শর্তও রাখলেন। গণেশ মহর্ষিকে বলেছিলেন যে তিনি লিখতে গিয়ে এক মুহূর্তও থামবেন না। মহর্ষি তার কথা মেনে নিয়েছিলেন।

গণপতি পূজায় কেন তুলসি নিষিদ্ধ: গণেশ ঠাকুর বিয়ে এড়াতে তপস্যা করছিলেন। তুলসী সেখানে এসে গণেশের তপস্যায় ব্যাঘাত ঘটাতে লাগলেন। গণেশ ঠাকুরের তপস্যা ভঙ্গ হওয়ার সাথে সাথে তিনি ক্রুদ্ধ হয়ে তুলসীকে অভিশাপ দেন যে পরের জন্মে তুমি গাছ হয়ে জন্মাবে এবং একজন অসুরের সাথে তোমার বিয়ে হবে। একথা শুনে তুলসীও রেগে যান এবং তিনিও গণেশ ঠাকুরকে অভিশাপ দেন যে, যে ফলটির জন্য আপনি এই তপস্যা করছেন, তা সম্পূর্ণ হবে না এবং শীঘ্রই আপনার দুটি বিয়ে হবে, তাই গণপতি  পূজায় তুলসী দেওয়া হয় না।

শাস্ত্র অনুসারে গণপতির যেসব অঙ্গ বস্ত্র ও অলঙ্কারে আবৃত থাকে তা দেখা নিষিদ্ধ। কেউ যদি ভুলবশত এই অঙ্গগুলি দেখে ফেলে তবে তার সাথে অপ্রীতিকর কিছু ঘটতে পারে।

পীঠ- গণপতির পিঠে দারিদ্র্য থাকে, তাই গণপতির পিঠ দেখা উচিত নয়।

নাভি- গণপতির নাভি দেখলে মানসিক বিকার আসে। এতে মন খারাপ হয়।

গলা- গণপতির গলা দেখা গলার রোগ হতে পারে, তাই তার গলাও দেখা উচিত নয়।

 

ভাগ্যলিপি খবর
বন্ধ করুন

Latest News

লক্ষ্য আলাদা রাজ্য, নির্দল হিসাবে লড়ব….বিস্ফোরক উত্তরবঙ্গের বিজেপি বিধায়ক ২০২৪ লোকসভা ভোটে BJPর ১৯৫ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ্যে, মোদী লড়ছেন কোথা থেকে? ISL 2023 (Bengaluru vs Kerala) Live Updates: LIVE: বাংলার ২০ আসনের প্রার্থী ঘোষণা করছে BJP, কারা কোন লোকসভা আসনে? MP vs VIDAR: আবেশ খানের আগুনে ১৭০ রানেই শেষ বিদর্ভ, চালকের আসনে পণ্ডিতের ছেলেরা নন্দীমুখ, দধিমঙ্গলের অনুষ্ঠানে লালপাড় সাদা শাড়িতে শ্রীময়ী, পাঞ্জাবিতে কাঞ্চন 'মন জিতে নিলেন', মা নীতার জন্য আবেগঘন বার্তা অনন্তের, নিমেষে ভাইরাল ভিডিয়ো ‌‘‌আমি বললে আবার বিস্ফোরণ হবে’‌, সুদীপ–কুণাল–তাপস দ্বৈরথে নিরাপদ দূরত্ব ফিরহাদের মুখ্যমন্ত্রী উদ্বোধন করেছিলেন আগে, সেই একই ইউনিটে ফিতে কাটলেন টিএমসি MLA ‘ফাইনাল’ ডেট, এবার গঙ্গার তলা দিয়ে ছুটবে মেট্রো! কবে উদ্বোধন? জানালেন রেলমন্ত্রী

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.