বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > রান্নাঘরের সঠিক বাস্তু খুলবে সুখ-সমৃদ্ধির দ্বার
রান্নার উনুন আগ্নেয় কোণে রাখা উচিত।
রান্নার উনুন আগ্নেয় কোণে রাখা উচিত।

রান্নাঘরের সঠিক বাস্তু খুলবে সুখ-সমৃদ্ধির দ্বার

  • রান্নাঘর তৈরির সময় শুধু এর দিকই নয়, আরও অন্যান্য বিষয় লক্ষ্য করা জরুরি। রান্নাঘরের বাস্তুদোষের কারণে অর্থহানি, ব্যবসায়ে ক্ষতি, সম্পর্কে তিক্ততা আসতে পারে।

বাস্তু অনুযায়ী ঘর তৈরির পরও যদি সমস্যার সম্মুখীন হতে থাকেন, তা হলে রান্নাঘরের বাস্তুর দিকে নজর দেওয়া জরুরি হয়ে পড়ে। রান্নাঘর তৈরির সময় শুধু এর দিকই নয়, আরও অন্যান্য বিষয় লক্ষ্য করা জরুরি। রান্নাঘরের বাস্তুদোষের কারণে অর্থহানি, ব্যবসায়ে ক্ষতি, সম্পর্কে তিক্ততা আসতে পারে।

  • রান্নাঘরের জন্য দক্ষিণ-পূর্ব দিক (আগ্নেয় কোণ)-কে সর্বশ্রেষ্ঠ মনে করা হয়। তবে বিক্লপ হিসেবে দক্ষিণ-পূর্বের তরফে পূর্ব ও উত্তর-পশ্চিমের তরফে পশ্চিম দিকে রান্নাঘর তৈরি করা যেতে পারে।
  • ভুলেও দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে রান্নাঘর রাখতে নেই। এই দিকে রান্নাঘর থাকলে ব্যক্তি নিজের কৌশল ব্যবহার করতে পারে না। এর ফলে অস্থায়ী কেরিয়ার ও পরিবারে কটূ সম্পর্কের মোকাবিলা করতে হয়।
  • রান্নার উনুন আগ্নেয় কোণে রাখা উচিত। আবার রাঁধুনির মুখ পূর্ব দিকে থাকা উচিত। এর ফলে ধন-বৃদ্ধি হয় ও স্বাস্থ্য ভালো থাকে।
  • বাড়ির প্রবেশদ্বারের সামনে রান্নাঘর থাকলে, তা বাস্তুদোষের অন্যান্য কারণগুলির মধ্যে অন্যতম। এ ক্ষেত্রে রান্নাঘরের দ্বারে পর্দা লাগানো উচিত।
  • পানীয় জল ও হাত ধোয়ার কল ঈশাণ কোণে থাকা উচিত। রান্নাঘরে সিঙ্ক থাকা উচিত উত্তর-পশ্চিম দিকে।
  • সকালে উঠে সবার আগে রান্নাঘর পরিষ্কার করে, স্নান করেই রান্না করা উচিত। এমন করলে অর্থাভাব হবে না।
  • রান্নাঘরেই পুজোর স্থান হলে তা-ও বাস্তুদোষের কারণ। হেঁশেলে পুজোঘরের পবিত্রতা বাধিত হয়। এর ফলে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ভালোবাসার অভাব ও অর্থাভাবও দেখা দিতে পারে।
  • রান্নাঘরে অপ্রয়োজনীয় জিনিস থাকলে সদস্যদের উন্নতি বাধা হয়ে দাঁড়ায়। অপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলি সরিয়ে ফেলাই ভালো।
  • রান্নাঘরের সামনে বা পাশে বাথরুম থাকা উচিত নয়। যদি বাথরুম থাকে, তা হলে সেটি সবসময় বন্ধ রাখা উচিত। না-হলে সেখান থেকে অশুভ শক্তি প্রবেশ করতে পারে। 
  • কিছু রান্না করলে, তা দেবী-দেবতাদের ভোগের জন্য বার করে রাখা জরুরি। আবার গোরুর জন্য রুটিও আলাদ রাখা উচিত। এর ফলে বাস্তুদোষ ও অন্যান্য সঙ্কট দূর হয়। 
  • উনুন ও সিঙ্ক সমানে সমানে রখা উচিত নয়। এর ফলে পারিবারিক কলহ দেখা দিতে পারে।
  • শুভ শক্তির বৃদ্ধির জন্য রান্নাঘরের পূর্ব বা উত্তর দিকের দেওয়ালে স্বস্তিক চিহ্ন আঁকা শুভ মনে করা হয়।

বন্ধ করুন