বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > বাড়িতে রাখুন এই সমস্ত জিনিস, হবে আর্থিক উন্নতি, দূর হবে অনটন
বাস্তু অনুযায়ী বাড়িতে ধাতুর মাছ রাখলে অর্থের আগমন ঘটবে।
বাস্তু অনুযায়ী বাড়িতে ধাতুর মাছ রাখলে অর্থের আগমন ঘটবে।

বাড়িতে রাখুন এই সমস্ত জিনিস, হবে আর্থিক উন্নতি, দূর হবে অনটন

অনেক সময় বহু চেষ্টা সত্ত্বেও অর্থাভাব কাটিয়ে ওঠা যায় না। বাস্তু শাস্ত্রে এমন কিছু উপায় সম্পর্কে জানানো হয়েছে, যার ফলে পরিবারে সুখ-সমৃদ্ধি বৃদ্ধি হয়।

সুখ-শান্তিতে জীবন কাটানোর জন্য কঠোর পরিশ্রম করে থাকি সকলে। কিন্তু অনেক সময় বহু চেষ্টা সত্ত্বেও অর্থাভাব কাটিয়ে ওঠা যায় না। বাস্তু শাস্ত্রে এমন কিছু উপায় সম্পর্কে জানানো হয়েছে, যার ফলে পরিবারে সুখ-সমৃদ্ধি বৃদ্ধি হয়। 

১. তুলসী গাছ- বাস্তু অনুযায়ী বাড়ির উত্তর দিকে তুলসী গাছ লাগানো উচিত। মনে করা হয় তুলসী গাছ লাগালে বাড়িতে ইতিবাচক শক্তির সঞ্চার হয়। নিয়ম মেনে তুলসী পুজো করলে লক্ষ্মী প্রসন্ন হন।

২. মাটির কলসি- বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী আর্থিক অনটন থেকে মুক্তি পেতে মাটির কলসিতে জল ভরে বাড়ির উত্তর দিকে রাখা উচিত। মনে করা হয় এমন করলে আর্থিক সমস্যা দেখা দেয় না।

৩. ক্রিস্টাল বল- বাড়িতে ক্রিস্টাল বল রাখা অত্যন্ত শুভ। বাড়ির দরজা বা জানালার ওপর এই বল লাগানো উচিত। এমন করলে বাড়িতে অর্থাভাব থাকে না।

৪. ধাতুর কচ্ছপ- বাড়ির উত্তর দিকে ধাতুর কচ্ছপ রাখা শুভ। এই কচ্ছপের মুখ বাড়ির ভিতরে রাখবেন। এর প্রভাবে পরিবারে সুখ-সমৃদ্ধির বাস হয়।

৫. হাতির মূর্তি- হাতির মূর্তিকে অত্যন্ত শুভ মনে করা হয়। লক্ষ্মীর আশীর্বাদ লাভের জন্য হাতির মূর্তি বা হাঁসের জোড়া রাখবেন। 

৬. জলের ট্যাঙ্ক- বাস্তু অনুযায়ী বাড়ির ছাদে পশ্চিম দিকে জলের ট্যাঙ্ক রাখা উচিত। এর ফলে আর্থিক পরিস্থিতি মজবুত হয় এবং কোনও অভাব থাকে না। এর প্রভাবে বাড়ির পরিবেশে আনন্দ থাকে।

৭. ধাতুর মাছ- বাস্তু অনুযায়ী বাড়িতে ধাতুর মাছ রাখাও শুভ। এর প্রভাবে সমস্যা তো দূর হবেই, পাশাপাশি অর্থের আগমনও ঘটবে।

৮. লক্ষ্মীর মূর্তি- লক্ষ্মী অর্থের দেবী। বাস্তু অনুযায়ী বাড়ির উত্তর দিকে পদ্মে অধিষ্ঠিত লক্ষ্মীর মূর্তি রাখা উচিত। তাতে যেন হাত থেকে সোনার মুদ্রা পড়ার ছবি থাকে। এই ছবি বাড়িতে লাগালে সুখ-সমৃদ্ধি আসে এবং অর্থাভাব দূর হয়।

৯. পিরামিড- রুপো, পিতল বা তামার পিরামিড বাড়িতে রাখলে উন্নতি হয়। পরিবারের সদস্যরা যেখানে একসঙ্গে বেশি সময় কাটায় সেখানে এই পিরামিড রাখবেন।

বন্ধ করুন