বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > রামনাম আর লাড্ডু ভোগে চটপট খুশি হন বজরংবলী
লাল গোলাপ, জবা, তুলসী পাতা ও গাঁদা ফুল বজরংবলীর প্রিয়।
লাল গোলাপ, জবা, তুলসী পাতা ও গাঁদা ফুল বজরংবলীর প্রিয়।

রামনাম আর লাড্ডু ভোগে চটপট খুশি হন বজরংবলী

  • বজরংবলীকে খুশি করার জন্য কয়েকটি মন্ত্র রয়েছে। এগুলির জপ করলে শীঘ্র তাঁর আশীর্বাদ পাওয়া যায়।

হিন্দু ধর্ম অনুযায়ী বজরংবলীর পুজো সহজ। পাশাপাশি এ-ও মনে করা হয়, বজরংবলী শীঘ্র প্রসন্ন হন। জানুন কোন উপায়ে বজরংবলীকে শীঘ্র সন্তুষ্ট করা যায়।

  • দিনে অনন্ত একবার রামের নাম নিন। 
  • যে ব্যক্তি নিয়মিত হনুমান চালিসা ও বজরংবাণ পাঠ করেন তাঁর ওপর বজরংবলী শীঘ্র প্রসন্ন হন ও আশীর্বাদ দেন।
  • মঙ্গলবার ও শনিবার বোঁদের লাড্ডুর ভোগ দিলে বজরংবলী খুশি হন।
  • তাঁকে সিঁদূরীও বলা হয়। সিঁদূর তাঁর অত্যন্ত প্রিয়। তাই বজরংবলীকে সিঁদূর অর্পণ করলে তিনি খুশি হন। ব্যক্তির জীবনে কোনও বাধা উৎপন্ন হলে শনিবার হনুমান মন্দিরে গিয়ে সিঁদূর অর্পণ করলে তাঁর আশীর্বাদ পাওয়া যায়।
  • লাল গোলাপ, তুলসী পাতা ও গাঁদা ফুল বজরংবলীর প্রিয়। নিয়মিত এই ফুল-পাতা অর্পণ করলে ব্যক্তির জীবন থেকে সমস্ত বাধা দূর হয়।
  • বজরংবলীকে খুশি করার জন্য কয়েকটি মন্ত্র রয়েছে। এগুলির জপ করলে শীঘ্র তাঁর আশীর্বাদ পাওয়া যায়। যেমন- ‘ওম হং হনুমতে নমঃ।‘

‘অতুলিতবলধামং হেমশৈলাভদেহং দনুজবনকৃশানুং জ্ঞানিনামগ্রগণ্যম্। সকলগুণনিধানং বানরাণামধীশং রঘুপতিপ্রিয়ভক্তং বাতজাতং নমামি।।‘

‘ওম অঞ্জনিসূতায় বিদ্মহে বায়ুপুত্রায় ধীমহি তন্নো মারুতি প্রচোদয়াৎ।‘

বন্ধ করুন