বাড়ি > ভাগ্যলিপি > গঙ্গা দশমী: জানুন রাশি অনুযায়ী কি দান করলে পুণ্য অর্জন করবেন
গঙ্গা দশমীর পুণ্য তিথিতে গঙ্গাস্নান এবং পিতৃপুরুষদের তর্পণ করার পরে দান করা উচিত।
গঙ্গা দশমীর পুণ্য তিথিতে গঙ্গাস্নান এবং পিতৃপুরুষদের তর্পণ করার পরে দান করা উচিত।

গঙ্গা দশমী: জানুন রাশি অনুযায়ী কি দান করলে পুণ্য অর্জন করবেন

  • গঙ্গা দশমীর দিন গঙ্গা স্নান করলে ১০ রকম পাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

পুরাণ অনুযায়ী জৈষ্ঠ্য মাসের শুক্লপক্ষের দশমী তিথিতে গঙ্গা মর্ত্যলোকে অবতরণ করেন। হিন্দু ধর্মে কোনও ধার্মিক অনুষ্ঠানই গঙ্গাজল ছাড়া সম্পন্ন হয় না। গঙ্গা দশমীর দিন গঙ্গাস্নান করলে ১০ রকম পাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এই পুণ্য তিথিতে গঙ্গাস্নান এবং পিতৃপুরুষদের তর্পণ করার পরে দান করা উচিত।

আজ, গঙ্গা দশমীর দিন সিদ্ধি এবং রবি যোগ নামের শুভ যোগ তৈরি হয়েছে। পুরাণ অনুযায়ী, যে দিন গঙ্গা পৃথিবীতে অবতরণ করেছিলেন, সে দিন ১০টি মহাশুভযোগের সৃষ্টি হয়েছিল। সেই সময় জ্যৈষ্ঠ মাসের শুক্লপক্ষের দশমী তিথি এবং বুধবার, হস্ত নক্ষত্র, ব্যতিপাত যোগ, গর এবং আনন্দ যোগ, কন্যা রাশিতে চন্দ্র, বৃষ রাশিতে সূর্য ছিলেন। 

এই কারণে গঙ্গা দশমীর শুভক্ষণে অবশ্যই দান করা উচিত। এ দিন রাশি অনুযায়ী দান করলে পুণ্য অর্জন করা যায়।

কোন রাশির জাতকদের কী সামগ্রী দান করা উচিত জেনে রাখুন।

মেষ- তিল ও কাপড় দান করা উচিত।

বৃষ- গরিবদের অন্ন এবং অর্থ দান করবেন।

মিথুন- জল দান করা অতি শুভ ফলদায়ক।

কর্কট- ফল দান করলে পুণ্য লাভ হবে।

সিংহ- তামার বাসনের সঙ্গে কিছু অন্ন এবং ফল দান করা উচিত।

কন্যা- শিব মন্দিরের পুরোহিতকে বিভিন্ন প্রকার ফল দান করুন।

তুলা- পশু-পাখিকে জল ও অন্ন প্রদান শুভ।

বৃশ্চিক- পথিককে জল ও মরশুমি ফল বিতরণ করা উচিত।

ধনু- কালো তিল দান করুন।

মকর- মাটির কলসি দান করুন।

কুম্ভ- গরিবদের ভোজন বিতরণ করুন এবং বাড়িতে ব্রাহ্মণদের ভোজন করানোর পর দক্ষিণা দিন।

মীন- জলদান এই রাশির জাতকদের জন্য অত্যন্ত শুভ।

বন্ধ করুন