বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Tulsi Vivah Date and Timing: তুলসী বিয়ে কবে? তারিখ নিয়ে বিভ্রান্তি আছে অনেকেরই, সঠিক সময় জেনে নিন এখান থেকে

Tulsi Vivah Date and Timing: তুলসী বিয়ে কবে? তারিখ নিয়ে বিভ্রান্তি আছে অনেকেরই, সঠিক সময় জেনে নিন এখান থেকে

তুলসী বিয়ের সঠিক সময় কোনটি?

Tulsi Vivah Timing and Date: তুলসী বিয়ের দিন কবে? সঠিক তারিখটি জেনে নিন এখান থেকে। 

হিন্দু ধর্মের বিশ্বাস অনুসারে, দেবোত্থানী একাদশী কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের একাদশীতে হয়। কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের একাদশী তিথিতে ভগবান বিষ্ণুর চার মাসের নিদ্রায় যান। এর পরে দ্বাদশী তিথিতে ভগবান বিষ্ণুর শালগ্রাম রূপের সঙ্গে মা তুলসীর বিয়ে হয়। যাকে তুলসী বিয়েও বলা হয়। এ বছর একাদশী তিথি দু’দিন ধরে পড়েছে। তাই তুলসী বিয়ের তারিখ নিয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি রয়েছে। 

জেনে নিন দেবোত্থানী একাদশী ও তুলসী বিবাহের সঠিক তারিখ।

দেবোত্থানী একাদশী কবে?

এই বছর দেবোত্থানী একাদশী ৪ নভেম্বর তারিখে। 

দেবোত্থানী একাদশীর শুভ সময়

একাদশী তিথি ৩ নভেম্বর সন্ধ্যা ০৭.৩০-এ শুরু হবে, যা ৪ নভেম্বর সন্ধ্যা ০৬.০৮ মিনিটে শেষ হবে।

দেবোত্থানী একাদশীর উপবাসের সময়

দেবোত্থানী একাদশী উপবাস ভাঙার শুভ সময় হল ৫ নভেম্বর সকাল ০৬.৩৬ থেকে ০৮.৪৭ পর্যন্ত। দ্বাদশীর শেষ সময় বিকেল ০৫.০৬ পর্যন্ত।

তুলসী বিবাহ কখন হয়

এই বছর তুলসী বিবাহ হচ্ছে ৫ নভেম্বর ২০২২ তারিখে।

তুলসী বিবাহ শুভ মুহূর্ত

কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের দ্বাদশী তিথি শুরু হবে ০৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ০৬:০৮ মিনিট থেকে এবং শেষ হবে ০৬ নভেম্বর সন্ধ্যা ০৫:০৬ মিনিটে।

তুলসী বিবাহ পূজা

বিধি: একাদশীর উপবাসের দিনে ব্রহ্ম মুহূর্তে ঘুম থেকে উঠে স্নান করা এবং উপবাসের ব্রত গ্রহণ করা।

এর পরে ভগবান বিষ্ণুর পূজা করুন।

এবার ভগবান বিষ্ণুর সামনে প্রদীপ ও ধূপ জ্বালান। তার পরে তাঁদের ফল, ফুল এবং ভোগ নিবেদন করুন।

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে একাদশীর দিন ভগবান বিষ্ণুকে তুলসী নিবেদন করা উচিত।

সন্ধ্যায়, ভগবান বিষ্ণুর পূজা করার সময়, বিষ্ণু সহস্রনাম পাঠ করুন।

একাদশীর প্রাক্কালে শুধুমাত্র সাত্ত্বিক খাবার খাওয়া উচিত।

একাদশীর উপবাসে খাবার খাওয়া হয় না।

একাদশীতে ভাত খাওয়া নিষিদ্ধ।

একাদশীর উপবাস ভঙ্গের পর ব্রাহ্মণদের দান ও দক্ষিণা দিন।

একাদশী পূজা-পদ্ধতি

ভোরে ঘুম থেকে উঠে স্নান করে নিন।

বাড়ির মন্দিরে প্রদীপ জ্বালান।

ভগবান বিষ্ণুকে গঙ্গা জলে অভিষেক করুন।

ভগবান বিষ্ণুকে ফুল ও তুলসী ডাল অর্পণ করুন।

সম্ভব হলে এই দিনেও উপোস রাখুন।

দেবুথানী একাদশীর দিনে তুলসী বিভাও হয়।

ভগবান বিষ্ণুর শালিগ্রাম অবতার ও মাতা তুলসীর বিয়ে হয় এই দিনে।

এই দিনে তুলসী ও শালিগ্রামেরও পূজা করুন নিয়ম করে।

ভগবানকে খাবার অর্পণ করুন।মনে রাখবেন যে শুধুমাত্র সাত্ত্বিক জিনিস ঈশ্বরের কাছে নিবেদন করা হয়। তুলসী অবশ্যই ভগবান বিষ্ণুর ভোগের অন্তর্ভুক্ত। এটা বিশ্বাস করা হয় যে তুলসী ছাড়া ভগবান বিষ্ণু ভোগ গ্রহণ করেন না।

এই পবিত্র দিনে ভগবান বিষ্ণুর পাশাপাশি দেবী লক্ষ্মীরও পূজা করুন।

বন্ধ করুন