বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > পিতৃপক্ষের অষ্টমীতে হয় গজলক্ষ্মী পুজো, রাশি মেনে পুজো করলে পাবেন সুখ-সমৃদ্ধি
২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বর গজলক্ষ্মী ব্রত।
২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বর গজলক্ষ্মী ব্রত।

পিতৃপক্ষের অষ্টমীতে হয় গজলক্ষ্মী পুজো, রাশি মেনে পুজো করলে পাবেন সুখ-সমৃদ্ধি

  • পিতৃপক্ষের সময় মহালক্ষ্মী ব্রত পালন করা হয়। রাধা অষ্টমীর দিন থেকে এই ব্রত শুরু হয় এবং পিতৃপক্ষের অষ্টমীর দিনে এর সমাপ্তি ঘটে। এই ব্রতকে গজলক্ষ্মী ব্রত বলা হয়।

পিতৃপক্ষের সময় মহালক্ষ্মী ব্রত পালন করা হয়। রাধা অষ্টমীর দিন থেকে এই ব্রত শুরু হয় এবং পিতৃপক্ষের অষ্টমীর দিনে এর সমাপ্তি ঘটে। এই ব্রতকে গজলক্ষ্মী ব্রত বলা হয়।

গজলক্ষ্মী ব্রতর দিনে হাতির পুজো করা হয় ও মহালক্ষ্মীর গজলক্ষ্মী স্বরূপের পুজো করা হয়। পিতৃপক্ষের অষ্টমীর দিনে এই ব্রত পালিত হয়। ২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বর গজলক্ষ্মী ব্রত। এদিন অপার ধন-সম্পত্তি ও সুখী জীবনের আশীর্বাদ দেন লক্ষ্মী।

উল্লেখ্য, দীপাবলির চেয়েও শুভ মনে করা হয় গজলক্ষ্মী ব্রতকে। পিতৃপক্ষের অষ্টমীর দিনে রাশি অনুযায়ী গজলক্ষ্মীর পুজো করলে মহালক্ষ্মীর বিশেষ আশীর্বাদ লাভ করা যায়। এদিন কোন রাশির জাতকরা কী ভাবে লক্ষ্মীর পুজো করবেন জেনে নিন—

মেষ- এই রাশির ঋণে জর্জরিত জাতকদের মাটির হাতির সামনে ঋণহর্তা মঙ্গল স্তোত্র পাঠ করা উচিত। এর ফলে ঋণ থেকে মুক্তি ঘটতে শুরু করবে।

বৃষ- গজলক্ষ্মীর ব্রত থেকে শুরু করে প্রতি শুক্রবার লক্ষ্মী-বিষ্ণুর পুজো করলে ধন ও নাম লাভ করা যায়। কমপক্ষে এক বছর এমন করলে সুফল লাভ করা যায়।

মিথুন- রুপোর হাতি বানিয়ে লক্ষ্মী মন্ত্রে সিদ্ধ করে দোকান বা অফিসের টাকা রাখার স্থানে রাখুন। এর ফলে অর্থ ভাণ্ডার পরিপূর্ণ থাকে। পরিবারের সদস্যরা প্রসন্ন ও সুখী থাকে।

কর্কট- রাতে কলা পাতায় দুধ-ভাত রেখে চাঁদ ও মাটির হাতিকে দেখান। মন্দিরে কোনও পুরোহিতকে তা দান করে দিন। এতে ধনলাভের প্রবল যোগ সৃষ্টি হয়।

সিংহ- মাটির হাতি বানিয়ে তাতে সোনা বা রুপোর গহনা পরান। এর পর বিষ্ণুর সামনে ওম নমো নারায়ণায় মন্ত্র জপ করুন। এর ফলে বিশেষ ধনলাভ হবে।

কন্যা- লাজাবর্ত রত্নকে রুপোয় জড়িয়ে লক্ষ্মীর মন্ত্রে অভিমন্ত্রিত করুন। মাটির হাতিতে এটি অর্পণ করলে জাতক ধনবান হয়।

তুলা- রুপো বা সোনার হাতিতে পদ্ম ফুল অর্পণ করুন। এর ফলে লক্ষ্মীর আশীর্বাদ লাভ করা যায় এবং যশ পাওয়া যায়।

বৃশ্চিক- মাটির হাতির সামনে ঘি ও সরষের তেলের দুটি বড় প্রদীপ জ্বালান। এর পর যে কোনও লক্ষ্মী মন্ত্রের ২১ মালা জপ করুন, অক্ষয় ধন লাভ করবেন।

ধনু- সুন্দর হলুদ বস্ত্র ধারণ করুন। এর পর মাটির হাতিতে নানান অলঙ্কার অর্পণ করুন। 

মকর- কোনও জীবন্ত হাতিকে সোওয়া ডজন কলা খাওয়ান। মাটির হাতিকে বস্ত্র, অলঙ্কার দান করুন। এর ফলে আশ্চর্যজনক ভাবে সমস্ত বাধা দূর হবে এবং ধন সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাবে।

কুম্ভ- রুপোর হাতি বানিয়ে তাঁর পুজো করুন। মাটির হাতির সামনে প্রদীপ জ্বালান ও পুজো করুন। রুপোর কয়েন অর্পণ করুন। এর প্রভাবে যশ, সুখ, সমৃদ্ধি, বৈভব, ঐশ্বর্য ও সৌভাগ্য বৃদ্ধি ঘটবে।

মীন- হলুদ কাপড়ে ১১টি গোটা হলুদ রেখে ১১ মালা লক্ষ্মী মন্ত্র জপ করুন। তার পর হলুদ-সহ সেই লকারে রেখে দিন। প্রতিদিন সেখানে প্রদীপ জ্বালালে ব্যবসায় উন্নতি হয়।

বন্ধ করুন