বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > SSC scam : কার নির্দেশে নিয়োগপত্র? জানতে পার্থ-কল্যাণময়-শান্তিপ্রসাদকে বসিয়ে জেরা চায় CBI
পার্থ চট্টোপাধ্যায়, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ও শান্তিপ্রসাদ সিন্‌হা। (সংগৃহীত)

SSC scam : কার নির্দেশে নিয়োগপত্র? জানতে পার্থ-কল্যাণময়-শান্তিপ্রসাদকে বসিয়ে জেরা চায় CBI

  • কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা চাইছে তিন জনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে। এই মামলায় ধৃত এসএসসি-র প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রাসদ সিন্‌হাকে ফের হেফাজতে নিয়েছে সিবিআই। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ রহস্যের উদ্ঘাটন করতে চায় সিবিআই। আর এই রহস্যের পর্দা খুলতে পারেন সিবিআইয়ের হেফাজতে থাকা পার্থ চট্টোপাধ্যায়, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ও সদ্য হেফাজতে নেওয়া শান্তিপ্রসাদ সিন্‌হা। তাই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা চাইছে তিন জনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে। এই মামলায় ধৃত এসএসসি-র প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রাসদ সিন্‌হাকে ফের হেফাজতে নিয়েছে সিবিআই। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

এর আগে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ও রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে হেফাজতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। এ বার এই দুর্নীতিতে অন্যতম অভিযুক্ত শান্তিপ্রসাদকে ফের হেফাজতে নিল তারা। সূত্রে খবর, তিন জনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে পারে সিবিআই। সেই জেরার মূল উদ্দেশ্য হল দু’টি প্রশ্নের উত্তর পাওয়া। প্রথমত, কার নির্দেশে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছিল। দ্বিতীয়ত, এই নিয়োগপত্র নিয়ে তাঁদের ভূমিকা কী ছিল?

নবম-দশমের শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় শান্তিপ্রসাদকে গত ৯ সেপ্টেম্বর হেফাজতে নেয় সিবিআই। সাত দিনের হেফাজত শেষ হলে শনিবার তাঁকে ফের আদালতে পেশ করা হয়। সেখানে হেফাজতের মেয়াদ বৃদ্ধি করতে আবেদন করেন সিবিআইয়ের আইনজীবী। তিনি বলেন, নবম-দশম শিক্ষক নিয়োগ মামলায় যে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তাতে শান্তিপ্রসাদের প্রথমে নাম ছিল। জেরায় তাঁর উত্তরেও অসঙ্গতি রয়েছে। তিনি তদন্তে সহযোগিতা করছেন না বলে আদালতে আইনজীবী অভিযোগ করেন। এর পরই বিচারক তাঁকে সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেন।

বন্ধ করুন