বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কয়লাকাণ্ডে অভিষেক-রুজিরা খেলেন বড় ধাক্কা! দিল্লি হাইকোর্ট সায় দিল না কপিলের যুক্তিতে
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কয়লাকাণ্ডে অভিষেক-রুজিরা খেলেন বড় ধাক্কা! দিল্লি হাইকোর্ট সায় দিল না কপিলের যুক্তিতে

  • অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর স্ত্রী রুজিরার হয়ে দিল্লি হাইকোর্টে সওয়াল করেন বিশিষ্ট আইনজীবী ও কংগ্রেস নেতা কপিল সিবাল। তবে তাঁর যাবতীয় যুক্তিতে কার্যত সায় দেয়নি আদালত। অন্যদিকে ইডির পক্ষে গিয়ে সওয়াল করেন সিলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা।

কয়লাকাণ্ডে তৃণমূল সাংসদ তথা সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর স্ত্রী রুজিরা বড়সড় ধাক্কার মুখে পড়লেন দিল্লি হাইকোর্টে। উল্লেখ্য, বহু কোটি টাকার কয়লা কেলেঙ্কারিতে অভিষেককে জেরা করতে চেয়ে অভিষেক ও রুজিরার কাছে নোটিস পাঠায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট। এই জেরার পর্ব যাতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সি দিল্লিতে করতে চেয়েছে। অন্যদিকে, অভিষেক,রুজিরা আদালতের দ্বারস্থ হয়ে জেরা কলকাতায় করার জন্য আবেদন জানান। আর সেই আবেদনই দিল্লি হাইকোর্টে খারিজ হয়ে যায়।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর স্ত্রী রুজিরার হয়ে দিল্লি হাইকোর্টে সওয়াল করেন বিশিষ্ট আইনজীবী ও কংগ্রেস নেতা কপিল সিবাল। তবে তাঁর যাবতীয় যুক্তিতে কার্যত সায় দেয়নি আদালত। অন্যদিকে ইডির পক্ষে গিয়ে সওয়াল করেন সিলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা। তাঁর সওয়ালের পক্ষে যুক্তি হিসাবে তুষার মেহতা বলেন, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সির সর্বভারতীয়স্তরে তদন্তকরার এক্তিয়ার রয়েছে। কোনও একটি রাজ্যের মধ্যে তা সীমাবদ্ধ থাকবে না। সওয়াল জবাবের পর্বে দিল্লিতে তদন্তের জেরা প্রক্রিয়ার জন্য পর পর যুক্তি পেশ করতে থাকেন সলিসিটার জেনারেল। তিনি বলেনস অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যেহেতু সাংসদ, তাই দিল্লিতে তাঁর বাসভবনের ঠিকানাও রয়েছে। এই মর্মে দিল্লিতে জেরা নিয়ে যুক্তি আরও পোক্ত করেন তুষার মেহতা।

অন্যদিকে, কপিল সিবাল অভিষেকদের হয়ে যুক্তিতে বলেন, কেন দিল্লিতেই অভিষেক ও রুজিরাকে জেরা করা হবে, তার পক্ষে কোনও জোরালো যুক্তি সাজাতে পারেনি ইডি। তিনি রুজিরাকে তলব প্রসঙ্গে বলেন, কোনও শারীরিকভাবে অক্ষম , শিশু ও মহিলাকে তাঁর বাড়িতে গিয়েই জেরা করা উচিত। তবে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিশিষ্ট আইনজীবী কপিল সিবালের এই যুক্তিতে সায় দেয়নি দিল্লি আদালত। প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর অভিষেক ও তাঁর স্ত্রীকে তলব করেছিল ইডি। সেই তলবকে চ্যালেঞ্জ জানান তৃণমূল সাংসদ ও তাঁর স্ত্রী। তাঁদের যুক্তি ছিল সাংসদ ও তাঁর স্ত্রী যখন পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা, তাহলে কেন তাঁদের জেরার জন্য ডেকে পাঠানো হচ্ছে দিল্লিতে?এই মর্মেই তাঁরা আবেদন জানান দিল্লি হাইকোর্টে। যা শুক্রবার খারিজ করে আদালত।

বন্ধ করুন