বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > Dilip Ghosh: কাঁচা বাঁশ কেটে রাখুন, গাঁট যেন বেরিয়ে থাকে, পঞ্চায়েত ভোটে দিলীপের দাওয়াই
দিলীপ ঘোষ। (PTI)

Dilip Ghosh: কাঁচা বাঁশ কেটে রাখুন, গাঁট যেন বেরিয়ে থাকে, পঞ্চায়েত ভোটে দিলীপের দাওয়াই

  • আগামী বছর রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট। ইতিমধ্যেই সেই ভোটের হাওয়া তির তির করে বইতে শুরু করেছে। শাসক দল অবশ্য প্রথম বলে আসছে পঞ্চায়েত ভোটকে শান্তিপূর্ণ করতে হবে। বিরোধীরা যাতে ভোটে অংশ নিতে পারেন তার সুযোগ করে দিতে হবে। এই আশ্বাস মানতে নারাজ বিরোধীরা।

ফের আক্রমণাত্মক দিলীপ ঘোষ। এ বার, শাসক দল যদি সুষ্ঠ ভাবে পঞ্চায়েত ভোট করতে না দেয় তবে তার দাওয়াই বাতলে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি। কী সেই দাওয়াই?

বিষ্ণুপুরে নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতি সভায় দিলীপ দলেন কর্মী ও সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, ‘‘ এখন থেকে বাঁশ কেটে রাখুন, শুকোবেন না, ঘরের মধ্যে রেখে দিন। গাঁট যেন বেরিয়ে থাকে। মারলে যেন গায়ে দাগ থাকে।’’

আগামী বছর রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট। ইতিমধ্যেই সেই ভোটের হাওয়া তির তির করে বইতে শুরু করেছে। শাসক দল অবশ্য প্রথম বলে আসছে পঞ্চায়েত ভোটকে শান্তিপূর্ণ করতে হবে। বিরোধীরা যাতে ভোটে অংশ নিতে পারেন তার সুযোগ করে দিতে হবে।

রবিবার মালবাজারে চা শ্রমিকদের সমাবেশ থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘শান্তিপূর্ণ পঞ্চায়েত নির্বাচন করতে হবে। আমরা যেমন আমাদের কথা মানুষের কাছে বলব তেমনি বিরোধীরাও তাঁদের কথা বলবেন।’’

এর আগে একই সুর শোনা যায় বীরভূমের জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের গলায়। পঞ্চায়েত ভোট প্রসঙ্গে তিনি শনিবার বলেন, ‘‘বিডিও অফিসে সবাই যে যার একা একা যাবে। মনোনয়ন জমা দেবে। এ বারে ভদ্র ভোট হবে। সুস্থ ভাবে ভোটে।’’

কিন্তু শাসক দলের এই আশ্বাস মানতে নারাজ বিজেপি। সভাতে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘ গতবার আমরা সাদা মনে ভোট করতে গিয়েছিলাম। তাই আমাদের মনোনয়ন দিতে দেওয়া হয়নি। এ বার তা হবে না। আমরা তৈরি হয়ে যাব।’’

বন্ধ করুন