কপিল মুনির আশ্রমে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
কপিল মুনির আশ্রমে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নতুন জেলা হবে সুন্দরবন, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগে পাথরপ্রতিমায় ঘোষণা মমতার

  • কিন্তু চার বছরেও সেই সেতু তৈরি হয়নি। কুম্ভমেলা রেলপথে গোটা দেশের সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু গঙ্গাসাগরের যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়ে মাথাব্যাথা নেই কেন্দ্রের।

পূর্ণাঙ্গ জেলা হবে সুন্দরবন। মঙ্গলবার পাথরপ্রতিমায় প্রশাসনিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগে সরব হয়ে এমনটাই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন কাকদ্বীপ ও সাগরদ্বীপের মধ্যে সেতু না হওয়ায় কাঠগড়ায় তোলেন কেন্দ্রীয় সরকারকে। অভিযোগ করেন, কুম্ভমেলার প্রতি কেন্দ্র সদয় হলেও গঙ্গাসাগর মেলার প্রতি কোনও নজর নেই কেন্দ্রের। বিশেষজ্ঞদের মতে, বিজেপি হিন্দু হিতৈষী ভাবমূর্তিতে আঘাত দিতে দীর্ঘদিন ধরেই এই তাস খেলছেন মমতা।

এদিন মমতা বলেন, তাজপুর বন্দরের চুক্তির সময় কেন্দ্রকে ৭৪ শতাংশ অংশীদারিত্ব দেওয়া হয়। শর্ত ছিল একটাই, কাকদ্বীপ থেকে সাগরদ্বীপের কচুবেড়িয়া পর্যন্ত লোহার সেতু তৈরি করে দিতে হবে। কিন্তু চার বছরেও সেই সেতু তৈরি হয়নি। কুম্ভমেলা রেলপথে গোটা দেশের সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু গঙ্গাসাগরের যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়ে মাথাব্যাথা নেই তাদের। এর পরই মমতা ঘোষণা করেন, ‘কেন্দ্রকে করতে হবে না। টাকা হলে আমিই ব্রিজ করে দেব।’


সুন্দরবনকে আলাদা জেলা করার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। আগেই সুন্দরবনকে আলাদা পুলিশ জেলা ঘোষণা করেছিল সরকার। এবার পূর্ণঙ্গ জেলার মর্যাদা দিতে চলেছে রাজ্য। মুখ্য বলেন, সুন্দরবনের বাসিন্দাদের প্রশাসনিক কাজকর্মের জন্য দূরে যেতে হয়। তাই আলাদা জেলা করার সিদ্ধান্ত।

বন্ধ করুন