বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাজবংশীদের ওপর TMC-র অত্যাচার বন্ধ না হলে আমরা আছি, KLO-র পোস্টার পড়ল চোপড়ায়
রবিবার সকালে দেখা মেলে এমনই পোস্টারের
রবিবার সকালে দেখা মেলে এমনই পোস্টারের

রাজবংশীদের ওপর TMC-র অত্যাচার বন্ধ না হলে আমরা আছি, KLO-র পোস্টার পড়ল চোপড়ায়

  • দিন কয়েক আগে কেএলওর একটি বিবৃতি প্রকাশ্যে আসে। তাতে কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতীম রায় ও প্রাক্তন বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়। চিঠিতে দাবি করা হয়, ভোটের পর কোচ জনজাতির মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে তৃণমূল।

কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি জেলার পর এবার উত্তর দিনাজপুরেও দেখা গেল নিষিদ্ধ জঙ্গীগোষ্ঠী কেএলও-র হুমকি পোস্টার। চোপড়া ব্লকের মাঝিয়ালি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকায় এই পোস্টারের দেখা মিলেছে। পোস্টারে কামতাপুরি ভাষায় লেখা, ‘চোপড়া ভূমিপুত্র রাজবংশীদের উপরত TMC উত্তাচার বন্ধ না হয় তাহলে হামরা আছি (কেএলও)’।

রবিবার সকালে গ্রামের বাসস্ট্যান্ড ও লাগোয়া বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারগুলি চোখে পড়ে। সাদা কাগজে কম্পিউটার প্রিন্টারে ছাপানো পোস্টারগুলি। এলাকায় কেএলও-র অস্তিত্ব রয়েছে জেনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। কারা পোস্টার সাঁটল জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশও।

দিন কয়েক আগে কেএলওর একটি বিবৃতি প্রকাশ্যে আসে। তাতে কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতীম রায় ও প্রাক্তন বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়। চিঠিতে দাবি করা হয়, ভোটের পর কোচ জনজাতির মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে তৃণমূল। কলকাতায় গিয়ে তারা যা করেছেন সেজন্য চরম পরিণতি ভুগতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। দিন কয়েক আগে কলকাতায় এসে আলাদা উত্তরবঙ্গ রাজ্যের দাবির বিরোধিতা করেছিলেন পার্থপ্রতীমবাবু। তার জেরেই হুমকি দেওয়া হয়। ইতিমধ্যে প্রকাশ্যে এসেছে কেএলও প্রধান জীবন সিংহের একটি ভিডিয়োও। তাতে সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় দেখা যায় তাঁকে। পুলিশের অনুমান, উত্তরপূর্ব বা মায়ানমারের কোনও গোপন ডেরায় তোলা হয়েছে ওই ভিডিয়ো।

 

বন্ধ করুন