বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নেই খাবার-জল, বিক্ষোভ দেখানোয় ১২ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নেই খাবার-জল, বিক্ষোভ দেখানোয় ১২ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ

  • অভিযোগ, তাদের ঠিকমতো জল ও খাবার দিচ্ছে না প্রশাসন। এই অভিযোগে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা।

পরিযায়ী শ্রমিকরা ভিনরাজ্য থেকে ফিরতেই জেলায় জেলায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে উঠেছে অব্যবস্থার অভিযোগ। কোথাও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মিলছে না পানীয় জলটুকু। কোথাও আবার কোয়ারেন্টাইনে না রেখে সোজা মহারাষ্ট্র ফেরত পরিবারকে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে বাড়িতে। এই সব অব্যবস্থার মধ্যেই এবার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে খাবার ও জলের দাবিতে বিক্ষোভ দেখানোয় ১২ জন গ্রামবাসীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। উস্তি থানা এলাকার এই ঘটনায় বুধবার থানার সামনে বিক্ষোভে বসেন সিপিএম নেতা কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়। তৃণমূলের দাবি, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সিপিএম লোক খ্যাপাচ্ছে।

উস্তি থানা এলাকার দক্ষিণ কেশিলি গ্রামে একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রয়েছে ভিনরাজ্য ফেরত প্রায় ১৫ জন যুবক। অভিযোগ, তাদের ঠিকমতো জল ও খাবার দিচ্ছে না প্রশাসন। এই অভিযোগে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। পুলিশ সেখানে গেলে ইটবৃষ্টি শুরু হয়। তাতে কয়েকজন পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। পুলিশের কয়েকটি গাড়ির কাচও ভেঙেছে। অভিযোগ, এর পর মঙ্গলবার রাতে কেশিলি গ্রামে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু করে পুলিশ। ১২ জনকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসে থানায়। তার মধ্যে ১ জন সিপিএম নেতাও রয়েছেন।

ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার উস্তি থানার সামনে বিক্ষোভে বসেন সিপিএম নেতা কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, গ্রামবাসীদের দাবির সুরাহা করার বদলে বিক্ষোভ দমনে বলপ্রয়োগ করেছে পুলিশ। সিপিএম নেতাকে গ্রেফতার করার সময় তাঁর পরিবারের মহিলা সদস্যদের পুলিশকর্মীরা শারীরিক হেনস্থা করেছেন। কান্তি বাবু জানান, তাঁকে গ্রেফতার করে থানার সামনে থেকে সরাতে হবে। প্রায় ২ ঘণ্টা পুলিশি আশ্বাসে অবস্থান তুলে নেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন