বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Birbhum: প্রার্থনার লাইনে দাঁড়িয়ে হঠাৎই জ্ঞান হারালো একের পর এক ছাত্রী, আতঙ্ক স্কুলে
প্রার্থনার লাইনে অসুস্থ ছাত্রী। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

Birbhum: প্রার্থনার লাইনে দাঁড়িয়ে হঠাৎই জ্ঞান হারালো একের পর এক ছাত্রী, আতঙ্ক স্কুলে

  • কী কারণে এমন ঘটনা তা বুঝে উঠতে পারছেন না কেউই। তবে প্রথমের শিক্ষকদের অনেকেরই আশঙ্কা ছিল কোনও বিষাক্ত গ্যাস হয়ত বাতাসে ছড়িয়ে পড়েছে। পরে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, অসুস্থ হওয়া ছাত্রীদের অধিকাংশই রক্তাল্পতার সমস্যায় ভুগছে।

প্রতিদিনকার মতো ক্লাস শুরুর আগে চলছিল প্রার্থনা। সেই সময় ঘটল অদ্ভুত ঘটনা। প্রার্থনার লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা একের পর এক ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে লুটিয়ে পড়ল মাটিতে। সব মিলিয়ে কমপক্ষে ১৭ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়েছে। ঘটনাটি বীরভূমের লাভপুর থানার হাতিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের। এমন ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্কুলের অন্যান্য পড়ুয়াদের পাশাপাশি শিক্ষকদের মধ্যে। অসুস্থ ছাত্রীদের লাভপুর গ্রামীণ হাসপাতাল এবং সিউড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন: মেলা থেকে ফেরার পথে একাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ বীরভূমে, চার যুবক পলাতক

কী কারণে এমন ঘটনা তা বুঝে উঠতে পারছেন না কেউই। তবে প্রথমের শিক্ষকদের অনেকেরই আশঙ্কা ছিল কোনও বিষাক্ত গ্যাস হয়ত বাতাসে ছড়িয়ে পড়েছে। পরে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, অসুস্থ হওয়া ছাত্রীদের অধিকাংশই রক্তাল্পতার সমস্যায় ভুগছে। শুক্রবার সকালে প্রার্থনার লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার সময় প্রথমে একজন ছাত্রী প্রথমে অচেতন হয়ে পড়ে। এরপর একে একে ১৭ জন ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে। ক্লাসে গিয়েও সমস্যার সমাধান হয়নি। অসুস্থ হওয়া ছাত্রীরা সকলেই ষষ্ঠ এবং সপ্তম শ্রেণির বলে জানা গিয়েছে। অসুস্থ ছাত্রীদের প্রথমে লাভপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের সিউড়ি সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুদীপ চৌধুরী জানিয়েছেন, অসুস্থ ছাত্রীরা লাভপুরের হাতিয়া, মুসলিম পাড়া, খাসপাড়ার বাসিন্দা। স্কুলশেষে অসুস্থ ছাত্রীদের বাড়ি গিয়ে তাদের খোঁজখবর নেন প্রধান শিক্ষক। চিকিৎসকের মতে, অসুস্থদের মধ্যে অনেকের শারীরিক সমস্যা তো ছিলই, অনেকেই আবার আতঙ্কে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। অসুস্থ ছাত্রীদের অনেকেই বাড়ি থেকে খাবার না খেয়ে স্কুলে এসেছিল বলে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন