বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 2 BJP Leaders Dead in Asansol: ডাম্পারের ধাক্কায় মৃত্যু আসানসোলের ২ BJP নেতার, রহস্যের গন্ধ পাচ্ছেন জেলা সভাপতি

2 BJP Leaders Dead in Asansol: ডাম্পারের ধাক্কায় মৃত্যু আসানসোলের ২ BJP নেতার, রহস্যের গন্ধ পাচ্ছেন জেলা সভাপতি

মৃত দুই বিজেপি নেতা বাবলু সিংহ ওরফে ভোলা এবং মহেন্দ্র সিংহ

মৃত দুই বিজেপি নেতার নাম বাবলু সিংহ ওরফে ভোলা এবং মহেন্দ্র সিংহ। বারাবনি মণ্ডল ২-এর সাধারণ সম্পাদক ছিলেন বাবলু। এদিকে সেই মণ্ডলেরই সহ-সভাপতি ছিলেন মহেন্দ্র। এই দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে জেলা বিজেপি সভাপতি দিলীপ দে বলেন, ‘এই ঘটনাই আমি রহস্যের গন্ধ পাচ্ছি।’

রবিবার রাতে আসানসোলে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু দুই বিজেপি নেতার। মৃত দুই বিজেপি নেতার নাম বাবলু সিংহ ওরফে ভোলা এবং মহেন্দ্র সিংহ। উভয় নেতারই বয়স ৩০ বছরের কাছাকাছি। জানা গিয়েছে, আসানসোলের বারাবনি থানার আমডিহা পেট্রোল পাম্পের কাছে দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় এই দুই নেতার। এদিকে এই দুই নেতার আকস্মিক মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে গেরুয়া শিবির। বিজেপির অভিযোগ, দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পনামাফিক খুন করা হয়ে থাকতে পারে এই দুই নেতাকে। এই আবহে তদন্তের দাবিতে সরব হয়েছে বিজেপির জেলা নেতৃত্ব। (আরও পড়ুন: সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা বাংলার ৬ জেলায়, বেলা গড়ালে বাড়বে রোদের তেজ)

জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে বাইকে করে যাচ্ছিলেন বালবু ও মহেন্দ্র। সেই সময় বারাবনি থানার আমডিহা পেট্রোল পাম্পের কাছে একটি ডাম্পারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বাইকের। এরপর দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। দুই বিজেপি নেতাকে রক্তাক্ত অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। তবে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দু'জনকেই মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। খবর পেয়েই হাসপাতালে যান আসানসোল জেলা সভাপতি দিলীপ দে, বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায় এবং বিজেপির অন্যান্য নেতা-কর্মীরা। দিলীপ এবং কৃষ্ণেন্দুর অভিযোগ, পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে ষড়যন্ত্র করেই এই দুই বিজেপি নেতাকে খুন করা হয়েছে। তাঁদের আরও দাবি, বিজেপি করার দায়ে দুই নেতাই বারাবনি গ্রামে নিজের বাড়িতে থাকতে পারতেন না। তবে বাবা-মাকে দেখতে গ্রামে গিয়েছিলেন দুই নেতা। সেখান থেকে ফেরার পথেই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন: নবান্নর শাস্তির তোয়াক্কা না করে আজ থেকে দিল্লিতে কর্মসূচি শুরু DA আন্দোলনকারীদের

জানা গিয়েছে, বারাবনি মণ্ডল ২-এর সাধারণ সম্পাদক ছিলেন বাবলু। এদিকে সেই মণ্ডলেরই সহ-সভাপতি ছিলেন মহেন্দ্র। এই দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে জেলা বিজেপি সভাপতি দিলীপ দে বলেন, 'এই ঘটনাই আমি রহস্যের গন্ধ পাচ্ছি। পঞ্চায়েত ভোটের আগে আমাদের লড়াকু কার্যকর্তাকে সরিয়ে দেওয়া, এটা কোনও স্বাভাবিক দুর্ঘটনা নয়। তদন্ত করলে নিশ্চয় এর সত্যতা বেরোবে। তবে রাজ্য প্রশাসন-এর তদন্ত করে কতটা সত্য বের করতে পারে জানি না। তাই ওদের পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে আমরা এটার সিবিআই তদন্ত চাইছি।' এদিকে দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বাপ্পা চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'বারাবনি অঞ্চলে তৃণমূলের চোখের চোখ রেখে রাজনীতি করতেন বাবলু সিং। ওঁর জন্যই বিজেপির বারাবনি অঞ্চলে সংগঠন মজবুত হয়ে উঠেছিল। তাই পঞ্চায়েত ভোটের আগে সরিয়ে দেওয়া হল বাবলু সিংকে। এটা সাধারণ দুর্ঘটনা নয়। এই ঘটনার পিছনে তৃণমূলের হাত থাকাটাও কোনও আশ্চর্য কিছু নয়।'

বাংলার মুখ খবর

Latest News

২১ জুলাইয়ে ৭ জেলায় সতর্কতা, ভারী বৃষ্টি চলবে তারপরেও, নিম্নচাপের প্রভাব কতদিন? 2025 IPL-এ কত জনকে রিটেন করা যাবে? স্যালারি ক্যাপ কি হবে?ঠিক হতে পারে মাসের শেষে ‘আমি রাজাকার’, সবথেকে ‘ঘৃণ্য’ শব্দই কীভাবে বাংলাদেশের পড়ুয়াদের স্লোগান হয়ে উঠল? শুভাশিসের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে মনামী? ৪০-এ এসে আইবুড়ো নাম ঘোচানোর তোড়জোর শুরু সুযোগ পেতে খারাপ ছেলে হতে হবে… রুতুরাজকে বাদ দেওয়ায় চটেছেন ভারতের প্রাক্তনী ২২ বছর আগের দুর্গাষ্টমীতে শুরু প্রেম, ২০ দিন আগে শেষবার একফ্রেমে যিশু-নীলাঞ্জনা! ২১ জুলাই কলকাতায় কোন কোন রাস্তায় গাড়ি ঘোরানো হবে? কোথায় পার্কিং নেই? রইল তালিকা মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্নের মুখে বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র, একুশের সভায় নতুন কী মিলবে?‌ আম্বানিদের বিয়েতে নাচানাচি,চেন্নাই যাওয়ায়ই কাল! হাসপাতাল থেকে ঘরে ফিরলেন জাহ্নবী টেকনিক্যাল কমিটিকে অন্ধকারে রেখেই কোচ বাছাই, রেগে লাল বাইচুং, দিলেন ইস্তফা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.