বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বীরভূমে ফের বজ্রপাতে মৃত ৩, আহত ১
বীরভূমে ফের বজ্রপাতে মৃত ৩, আহত ১
বীরভূমে ফের বজ্রপাতে মৃত ৩, আহত ১

বীরভূমে ফের বজ্রপাতে মৃত ৩, আহত ১

  • মঙ্গলবার বিকেলে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মহম্মদবাজারের খড়িয়া গ্রাম ও শ্রীকান্তপুরে।

বাজ পড়ার জেরে মৃত্যু মিছিল যেন কমছেই না। আবারও বজ্রপাতে মৃত্যু হল তিনজনের। ঘটনায় আহত হয়েছেন এক জন। মঙ্গলবার বিকেলে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মহম্মদবাজারের খড়িয়া গ্রাম ও শ্রীকান্তপুরে। এদিন প্রথম ঘটনাটি ঘটে খড়িয়া গ্রামে। চাষের মাঠ থেকে কাজ সেরে বাড়ির দিকে ফিরছিলেন প্রহ্লাদ মণ্ডল নামের এক কৃষক। সেই সময় আকাশ কালো হয়ে আসে। এই দেখে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরার চেষ্টা করছিলেন তিনি। মাঝরাস্তায় আচমকাই বিকট শব্দে তাঁর উপর বাজ আছড়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে বাজের আগুনে ঝলসে মৃত্যু হয় প্রহ্লাদবাবুর। তাঁর কাছাকাছি হেঁটে যাওয়া আরেক মহিলা ঘটনাস্থলেই আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই মহিলাকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। অন্য দিকে, মহম্মদবাজারেরই শ্রীকান্তপুরে বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয় আরও দু’জন ব্যক্তির।

এদিন শ্রীকান্তপুর মোড়ে থাকা একটি ইউক্যালিপটাস গাছে বাজ পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে সেই গাছে আগুন ধরে যায়। সেই সময় ওই গাছের নীচে দাঁড়িয়ে ছিলেন তাহির আনসারি ও আনন্দ কর্মকার নামের দু’‌জন। গাছে আগুন লাগতে দেখে পালানোর চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু পালাতে ব্যর্থ হন দু’‌জনেই। গাছটি ভেঙে তাঁদের উপর গিয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাহির ও আনন্দের। এদের মধ্যে একজন শ্রীকান্তপুর মোড়ের ওই গাছের পাশে কামারের কাজ করছিলেন। অন্য জন বাইক নিয়ে সেখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন। একই জেলায় মর্মান্তিক এই দুই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকায়।

প্রসঙ্গত, ‌বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে এ রাজ্যে বাজ পড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর আগেও ১ দিনে ২৭ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গিয়েছে। বীরভূমেও বাজ পড়ে একাধিক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বাজ পড়ে মৃত্যুর ঘটনায় রাজ্যজুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

 

বন্ধ করুন