বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জলপাইগুড়িতে একই বেডে চারজন শিশু, বেড কেন দেওয়া হয়নি? প্রশ্ন জেলাশাসকের
জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতাল(ফাইল ছবি) (সংগৃহীত )
জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতাল(ফাইল ছবি) (সংগৃহীত )

জলপাইগুড়িতে একই বেডে চারজন শিশু, বেড কেন দেওয়া হয়নি? প্রশ্ন জেলাশাসকের

  • হাসপাতাল সূত্রে খবর, রবিবার রাত পর্যন্ত হাসপাতালের শিশু বিভাগে ১২১জন শিশুর চিকিৎসা চলছিল।

মাঝে কিছুদিন কম থাকার পর জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি শিশুদের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে। শিশুবিভাগে একেবারে গিজগিজে ভিড়। এর সঙ্গেই শিশুদের পাশাপাশি মায়েদেরও সন্তানদের পাশে থাকতে হচ্ছে। পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় এদিকে একই বেডে তিন-চারজন শিশুকে রাখতে হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি ক্রমেই ঘোরালো হয়েছে। এদিকে এভাবে একই বেডে একাধিক শিশুকে রেখে চিকিৎসা করা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা। তিনি জানিয়েছেন, হাসপাতালের জন্য বেড কেনা হয়েছে। কিন্তু শিশুদের চিকিৎসার জন্য কেন সেই বেড দেওয়া হয়নি তা নিয়ে মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের সঙ্গে কথা বলব। 

 

এখানেই প্রশ্ন উঠছে খোদ জেলাশাসক যেখানে দাবি করছেন হাসপাতালের জন্য বেড কেনা হয়েছে, সেখানে কেন অসুস্থ শিশু ও তাদের পরিজনদের এভাবে নরকযন্ত্রনার মধ্যে কাটাতে হবে? তবে এনিয়ে হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ মুখ খুলতে চায়নি। তবে হাসপাতাল সূত্রে খবর, রবিবার রাত পর্যন্ত হাসপাতালের শিশু বিভাগে ১২১জন শিশুর চিকিৎসা চলছিল। নতুন করে আরও ২৪জন শিশু জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি হয়েছে। এর জেরে শিশু বিভাগে একেবারে ঠাঁই নেই অবস্থা তৈরি হয়েছে। এদিকে তিন শিশুকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কয়েকজন সুস্থ হয়ে যাওয়ায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এদিকে অভিভাবকদের অভিযোগ, জ্বর ও শ্বাসকষ্টের জেরে শিশুরা এমনিতেই সমস্যার মধ্যে রয়েছে। তার উপর এভাবে গা ঘেঁষাঘেষি করে থাকতে গিয়ে তারা আরও অসুস্থ হয়ে পড়ছে।

বন্ধ করুন