মুর্শিদাবাদে উদ্ধার বিপুল গাঁজা।
মুর্শিদাবাদে উদ্ধার বিপুল গাঁজা।

মুর্শিদাবাদে চা-পাতা বোঝাই ট্রাক থেকে উদ্ধার হল ৪০০ কিলোগ্রাম গাঁজা

  • অসমে পণ্য পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন লরির চালক। ফেরার সময় গাঁজা নির্দিষ্ট ঠিকানায় পৌঁছে দিলে চালককে ১ লক্ষ টাকা দেওয়ার টোপ দেয় পাচারকারীরা।

শ্রেয়সী পাল

চায়ের পেটির নীচে লুকিয়ে পাচারের সময় উদ্ধার হল ৪০০ কেজি গাঁজা। সোমবার রাতে এই বিপুল পরিমাণ গাঁজা উদ্ধার করল মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশ। মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, নাগাল্যান্ড থেকে ওই গাঁজা পাচার হচ্ছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর সুকি মোড়ে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। তখনই ধরা পড়ে চা-পাতা বোঝাই ট্রাকটি। সামনে একটি SUV-তে ছিল আরও একদল পাচারকারী। সেই গাড়িটি পালালেও ধরা পড়ে যায় ট্রাকটি। সেটিতে তল্লাশি চালিয়ে চায়ের পেটিতে মেলে গাঁজা।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ওই গাঁজা নাগাল্যান্ডে ফলানো হয়েছিল। গুয়াহাটির কাছে কোথাও তা চায়ের পেটিতে ভরা হয়। ঘটনায় ভোপাল সিং নামে ৩৩ বছর বয়সী এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি রাজস্থানের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশের দাবি, ওই গাঁজা কান্দিতে এক ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল। অসমে পণ্য পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন লরির চালক। ফেরার সময় গাঁজা নির্দিষ্ট ঠিকানায় পৌঁছে দিলে চালককে ১ লক্ষ টাকা দেওয়ার টোপ দেয় পাচারকারীরা। ৬০,০০০ টাকা তাঁকে অগ্রিম দেওয়া হয় বলে দাবি পুলিশের। বাকি ৪০,০০০ টাকা গাঁজা নির্দিষ্ট ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়ার পর দেওয়ার কথা ছিল।

চলতি বছর ৬০৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে মুর্শিদাবাদ পুলিশ। তার মধ্যে এটিই ছিল সব থেকে বড় ক্ষেপ। জানিয়েছেন পুলিশ সুপার এএস যাদব।


বন্ধ করুন