বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মর্মান্তিক! জলমগ্ন রাস্তায় পড়ে থাকা বিদ্যুতের তারে পা দিতেই মৃত্যু ছাত্রীর
বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ছাত্রীর  প্রতীকী ছবি।

মর্মান্তিক! জলমগ্ন রাস্তায় পড়ে থাকা বিদ্যুতের তারে পা দিতেই মৃত্যু ছাত্রীর

  • মৃতদেহ আটকে রেখে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই দুর্ঘটনার জন্য তারা বিদ্যুৎ দফতরের গাফিলতিতেই দায়ী করেছেন।

জলে ভর্তি রাস্তায় পড়েছিল বিদ্যুতের তার। আর সেই রাস্তা দিয়ে যেতে গিয়েই ঘটে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। শুধুমাত্র বিদ্যুৎ দফতরের অবহেলার কারণে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে প্রাণ গেল খুদে পড়ুয়ার। ঘটনাটি জলপাইগুড়ির মালবাজার মহাকুমার সাইলি চা বাগানের। মৃত স্কুল ছাত্রীর নাম প্রিয়া টোপ্পো (১০)। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। মৃতদেহ আটকে রেখে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই দুর্ঘটনার জন্য তারা বিদ্যুৎ দফতরের গাফিলতিতেই দায়ী করেছেন। তাদের বক্তব্য, এই ঘটনার জন্য বিদ্যুৎ দফতরকে অবিলম্বে ভুল স্বীকার করার পাশাপাশি মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

স্থানীয় সূত্রের খবর, কিছুদিন আগে বৃষ্টি হয়েছিল জলপাইগুড়ি জেলায়। তারপর থেকেই রাস্তার ধারে বৃষ্টির জল জমে রয়েছে। সেই জায়গাতেই রাস্তার ওপর পড়েছিল বিদ্যুতের তারের একটি অংশ। ফলে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই ওই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছিল স্থানীয় বাসিন্দাদের। অভিযোগ, এ নিয়ে তারা বেশ কয়েকবার বিদ্যুৎ দফতরের কাছে আবেদন জানালেও তাতে কোনও সাড়া মেলেনি। আজ শনিবার ওই রাস্তা দিয়ে স্কুলে যাচ্ছিল খুদে পড়ুয়া। তখন রাস্তায় জমে থাকা জলে পা দিতেই প্রথমে কেঁপে ওঠে ওই ছাত্রী এবং তারপরেই সে জলের মধ্যে পড়ে যায়।

এই খবর পাওয়ার পরে সেখানে ছুটে যান স্থানীয়রা। প্রতিবাদে তারা রাস্তা আটকে বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভ সামলানোর জন্য ঘটনাস্থলে পৌঁছয় প্রচুর পুলিশ। স্থানীয়দের অভিযোগ এমনিতে অল্প বৃষ্টিতেই এই রাস্তায় জল জমে থাকে। কিন্তু, তা মেরামতির জন্য কোনও হেলদোল দেখা যায়নি প্রশাসনের। তাছাড়া বিদ্যুতের তারও এই ভাবেই পড়ে রয়েছে বেশ কিছুদিন ধরে। বিদ্যুৎ দফতরকে জানানোর পরও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। শুধুমাত্র বিদ্যুৎ দফতরের গাফিলতির জন্য প্রাণ হারাতে হল একটি ছোট বাচ্চাকে।

বন্ধ করুন