বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সংক্রমণের আশঙ্কা, ফিরেও তাকায়নি কেউ, তিনদিন বাড়িতেই পড়ে থাকলেন করোনা রোগী
করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে অবশেষে সেফ হোমে পাঠাল পঞ্চায়েত সমিতি (প্রতীকী ছবি)
করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে অবশেষে সেফ হোমে পাঠাল পঞ্চায়েত সমিতি (প্রতীকী ছবি)

সংক্রমণের আশঙ্কা, ফিরেও তাকায়নি কেউ, তিনদিন বাড়িতেই পড়ে থাকলেন করোনা রোগী

  • অমানবিকতার ছবি যেমন রয়েছে, তেমনি মানবিকতার ছবিও দেখা যাচ্ছে করোনাকালে

করোনাকালে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নানা নজির সামনে আসছে বার বারই। এই সব ছবি, এই সব খবর, সংকটের দিনেও মন ভালো করে দেয়। অন্য়দিকে এই ভয়াবহ সমস্যার দিনগুলিতে সামনে আসছে অমানবিকতারও নানা ছবি। তেমনই অমানবিকতার সাক্ষী থাকল বজবজ। স্থানীয় এলাকাতেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন এক ব্যক্তি। তাঁর বয়স ৭০ বছরেরও উর্দ্ধে। এদিকে স্থানীয় সূত্রে খবর, কয়েকদিন আগে ওই পরিবারের এক সদস্যের করোনায় মৃত্যু হয়। এরপর পরিবারের অন্যান্যরা সদস্যরারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এদিকে বাড়িতেই ছিলেন সত্তরোর্ধ্ব ওই ব্যক্তি। তিনিও করোনায় আক্রান্ত। সহায়তা করার মতো কেউ নেই। এদিকে সংক্রমণের আশঙ্কায় তাঁর পাশে দাঁড়াননি কেউ। তিনদিন ধরে বাড়িতেই পড়েছিলেন তিনি। যে কোনও সময় বড় সমস্যায় পড়তে পারতেন তিনি। পরে বজবজ ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতি বিষয়টি জানতে পারে। এরপর তারাই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়। তাঁকে উদ্ধার করে আপাতত মহেশতলার একটি সেফ হোমে রাখা হয়েছে। 

স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের দাবি মূলত সংক্রমণের আশঙ্কাতেই অনেকে বাড়ি থেকে বের হতে চাইছেন না। এদিকে ওই বাড়িতে করোনায় একজনের মৃত্যুর হয়েছিল সম্প্রতি। বাড়ির একাধিক সদস্য় করোনায় আক্রান্ত। সেকারণে সংক্রমণের আশঙ্কাতেই কেউ কাছে ঘেঁষতে চাননি। তবে স্বস্তির বিষয় একটাই তিনি আপাতত সেফ হোমে রয়েছেন।

 

বন্ধ করুন