বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বেগুনের জমির পাশেই পড়ে রয়েছে মাঝবয়সী হাতি, শোরগোল ধূপগুড়িতে
বেগুনের জমির পাশ থেকে উদ্ধার মাঝবয়সী হাতির দেহ  (নিজস্ব চিত্র )
বেগুনের জমির পাশ থেকে উদ্ধার মাঝবয়সী হাতির দেহ  (নিজস্ব চিত্র )

বেগুনের জমির পাশেই পড়ে রয়েছে মাঝবয়সী হাতি, শোরগোল ধূপগুড়িতে

  • কিছুটা সাহস করেই হাতিটির দিকে এগিয়ে যান বাসিন্দারা। তাঁরা বুঝতে পারেন যে হাতিটি মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

তখনও ভোরের আলো ফোটেনি ভালো করে। জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি ব্লকের মধ্য খুট্টিমারি ভান্ডারকুরা গ্রাম এলাকায় একে এক ঘুম থেকে উঠছেন বাসিন্দারা। আচমকাই বেগুন ক্ষেতের দিকে নজর যায় বাসিন্দাদের। তাঁরা দেখেন বেগুন ক্ষেতের পাশেই একটি মধ্য বয়স্ক হাতি পড়ে রয়েছে। কিছুটা সাহস করেই হাতিটির দিকে এগিয়ে যান বাসিন্দারা। তাঁরা বুঝতে পারেন যে হাতিটি মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এদিকে এই খবর রটে যায় চারদিকে। অনেকেই হাতির দেহ  দেখতে এলাকায় ভিড় করেন। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, কোনওভাবে হাতিটি রাতে জঙ্গল থেকে বেরিয়ে পড়েছিল। কাছেই মরাঘাটের জঙ্গল। সেখান থেকেই সম্ভবত হাতিটি বেরিয়ে পড়েছিল। এরপর সেটি বেগুনক্ষেতের কাছে চলে আসে। এদিকে হাতি মৃত্যুর খবর পেয়ে বিন্নাগুড়ি বন্যপ্রাণী স্কোয়াড, মরাঘাট রেঞ্জের বনকর্মী ও ধূপগুড়ি থানার পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে আসে। পশু চিকিৎসকও ঘটনাস্থলে আসেন। দড়ি দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয় গোটা এলাকা। এরপর হাতিটিকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। তবে হাতিটির মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। বনদফতর জানিয়েছে এটি স্ত্রী হাতিটি কীভাবে এটি মারা গিয়েছে তা দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পরেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। 

 

তখনও ভোরের আলো ফোটেনি ভালো করে। জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি ব্লকের মধ্য খুট্টিমারি ভান্ডারকুরা গ্রাম এলাকায় একে এক ঘুম থেকে উঠছেন বাসিন্দারা। আচমকাই বেগুন ক্ষেতের দিকে নজর যায় বাসিন্দাদের। তাঁরা দেখেন বেগুন ক্ষেতের পাশেই একটি মধ্য বয়স্ক হাতি পড়ে রয়েছে। কিছুটা সাহস করেই হাতিটির দিকে এগিয়ে যান বাসিন্দারা। তাঁরা বুঝতে পারেন যে হাতিটি মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এদিকে এই খবর রটে যায় চারদিকে। অনেকেই হাতির দেহ  দেখতে এলাকায় ভিড় করেন। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, কোনওভাবে হাতিটি রাতে জঙ্গল থেকে বেরিয়ে পড়েছিল। কাছেই মরাঘাটের জঙ্গল। সেখান থেকেই সম্ভবত হাতিটি বেরিয়ে পড়েছিল। এরপর সেটি বেগুনক্ষেতের কাছে চলে আসে। এদিকে হাতি মৃত্যুর খবর পেয়ে বিন্নাগুড়ি বন্যপ্রাণী স্কোয়াড, মরাঘাট রেঞ্জের বনকর্মী ও ধূপগুড়ি থানার পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে আসে। পশু চিকিৎসকও ঘটনাস্থলে আসেন। দড়ি দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয় গোটা এলাকা। এরপর হাতিটিকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। তবে হাতিটির মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। বনদফতর জানিয়েছে এটি স্ত্রী হাতিটি কীভাবে এটি মারা গিয়েছে তা দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পরেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। 

|#+|

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন