বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সমুদ্রের স্রোতে ডুবতে বসেছিলেন মদ্যপ পর্যটক, ঝুঁকি নিয়ে বাঁচালেন নুলিয়ারা
সমুদ্রের স্রোতে ডুবতে বসেছিলেন মদ্যপ পর্যটক, ঝুঁকি নিয়ে বাঁচালেন নুলিয়ারা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
সমুদ্রের স্রোতে ডুবতে বসেছিলেন মদ্যপ পর্যটক, ঝুঁকি নিয়ে বাঁচালেন নুলিয়ারা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

সমুদ্রের স্রোতে ডুবতে বসেছিলেন মদ্যপ পর্যটক, ঝুঁকি নিয়ে বাঁচালেন নুলিয়ারা

টাল সামলাতে না পেরে সমুদ্রের উত্তাল ঢেউয়ে তলিয়ে গিয়েছিলেন পর্যটক 

মদ্যপান করে সমুদ্রে নেমে বিপাকে পড়লেন পর্যটক। টাল সামলাতে না পেরে সমুদ্রের ঢেউয়ে তলিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। সমুদ্রে ঝাঁপ দিয়ে তাঁকে বাঁচালেন সমুদ্রের ধারে কর্তব্যরত নুলিয়ারা। ওই পর্যটককে প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করলেন তারা। অবশ্যই পর্যটকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেই জানা গিয়েছে। শনিবার এমনই টানটান ঘটনার সাক্ষী থাকল দিঘার সমুদ্র সৈকত।

দিঘা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, জলে ডুবে গিয়ে আশঙ্কাজনক ওই ব্যক্তির নাম বিজয় নস্কর (8৫)। দক্ষিণ ২8 পরগনা বিষ্ণুপুরের বাসিন্দা তিনি। বন্ধুদের সঙ্গে দল বেঁধে দিঘায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। বিধিনিষেধ অমান্য করে মদ্যপ অবস্থায় সমুদ্রে নামেন তাঁরা। সমুদ্র উত্তাল দেখেও নুলিয়াদের নজর এড়িয়ে আরও গভীরে যাওয়ার চেষ্টা করেন তিনি৷ তখনই অঘটন ঘটে যায়। প্রবল ঢেউয়ের ধাক্কায় আর নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেননি বিজয়। পরে তাঁকে উদ্ধার করেন নুলিয়ারা।

অবশ্য এই ধরনের ঘটনা দিঘায় নতুন কিছু নয়৷ একশ্রেণির পর্যটকের গাফিলতির কারণে তাঁদের প্রাণ ঝুঁকির মধ্যে চলে আসেন। সেই কারণে বারবার দুর্ঘটনার কবলে পড়তে হয় পর্যটকদের। সম্প্রতি দিঘার সমুদ্রে ডুবে গিয়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছিল। ওড়িশার উপকূল থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়।

বন্ধ করুন