বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > East Burdwan: পুজোর অনুষ্ঠানে বচসা, কামড়ে প্রতিবেশীর আঙুল কেটে নিল মদ্যপ যুবক
আক্রান্ত যুবক।

East Burdwan: পুজোর অনুষ্ঠানে বচসা, কামড়ে প্রতিবেশীর আঙুল কেটে নিল মদ্যপ যুবক

  • সেই অনুষ্ঠানে অসংখ্য লোক এসেছিলেন। পীযূষও সেই অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। তার কিছুক্ষণ পরেই অনুষ্ঠানে যোগ দেয় অভিযুক্ত। অভিযোগ, এরপর তাদের মধ্যে কোনও একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়।

পুজোর অনুষ্ঠানে কথা কাটাকাটি। আর তার জেরে যুবকের আঙুল কামড়ে হাত থেকে কেটে আলাদা করে দিল মদ্যপ প্রতিবেশী। এই ঘটনাকে কেন্দ্র ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাটি পূর্ব বর্ধমানের নাদনঘাটের রায়পুরের। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত। মদ্যপ প্রতিবেশীর এমন কীর্তি দেখে অবাক সকলেই। বর্তমানে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসা চলছে ওই যুবককে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত যুবকের নাম পীযূষকান্তি ঘোষ এবং অভিযুক্ত যুবকের নাম নন্দন পাল। রায়পুরে মনসা পুজো উপলক্ষ্যে চলছিল ঝাঁপান অনুষ্ঠান। সেই অনুষ্ঠানে অসংখ্য লোক এসেছিলেন। পীযূষও সেই অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। তার কিছুক্ষণ পরেই অনুষ্ঠানে যোগ দেয় অভিযুক্ত। অভিযোগ, এরপর তাদের মধ্যে কোনও একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়। তারপরে অভিযুক্ত যুবক আচমকা পীযুষের ডান হাতের বুড়ো আঙুল মুখের ভিতর ভরে নেয়। তখনই আর্তনাদ করে ওঠেন পীযূষ। তার আর্তনাদের আওয়াজ শুনে সেখানে উপস্থিত মানুষজন ছুটে আসেন। সেখানে তারা দেখতে পান পীযূষের আঙুল কামড়ে হাত থেকে আলাদা করে দিয়েছে নন্দন। তার হাত রক্তে ভেসে যাচ্ছে। প্রথম ওই যুবককে কালনার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয় পরে সেখান থেকে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে।

যুবকের এই কাণ্ড দেখে অবাক সেখানে উপস্থিত মানুষজন। ঘটনার পরে এলাকা থেকে চম্পট দেয় মদ্যপ যুবক। কী কারণে এই ঘটনা ঘটছে বা তাদের মধ্যে কী নিয়ে ঝামেলা তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

বন্ধ করুন