বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করোনাকালে সহযোগিতা করতে নেমে 'বদনাম' পেয়েছে রেড ভলান্টিয়ার্স, বিতর্ক তুঙ্গে
এভাবেই মানুষের সাথে, মানুষের পাশে থাকার বার্তা রেড ভলান্টিয়ার্সদের (ফেসবুক)
এভাবেই মানুষের সাথে, মানুষের পাশে থাকার বার্তা রেড ভলান্টিয়ার্সদের (ফেসবুক)

করোনাকালে সহযোগিতা করতে নেমে 'বদনাম' পেয়েছে রেড ভলান্টিয়ার্স, বিতর্ক তুঙ্গে

  • অক্সিজেন সিলিন্ডার ফেরৎ নেওয়াকে কেন্দ্র করেই বচসার সূত্রপাত

এবার করোনা অতিমারীর মধ্যে বাংলা জুড়ে বেশ দাগ কেটেছে রেড ভলান্টিয়ার্সদের কর্মকাণ্ড। সংকটের দিনে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে বামপন্থীদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই। কিন্তু শুধুই কী সাধুবাদ, কাজ করতে নেমে বদনামও জুটছে তাঁদের কপালে। এমনতী হেনস্থার মুখেও পড়ছেন তাঁরা। সম্প্রতি তেমনি ঘটনার সাক্ষী থাকল আসালসোল। স্থানীয় সূত্রে খবর আসানসোলের শিমুলতলা এলাকার এক বাসিন্দা তাঁর বাবার জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার চেয়ে রেড ভলান্টিয়ার্সদের ফেসবুক পেজে আবেদন করেছিলেন। সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন রেড ভলান্টিয়ার্সরা। দিনের ৫০ টাকা ও ৫ হাজার টাকা ফেরৎযোগ্য ভাড়ায় চারদিনের জন্য সিলিন্ডার দেয় রেড ভলান্টিয়ার্সরা। এদিকে এরপরই ফেসবুক লাইভে অভিযোগ করেন রোগীর কন্যা। তাঁর দাবি জোর করে সিলিন্ডার নিতে চাইছে রেড ভলান্টিয়ার্সরা। তাঁর দাবি, ‘এরা নাকি মানুষের উপকার করে। এই রেড ভলান্টিয়ার্সরা বাড়ির দরজায় ধাক্কা মারছে। জোর করে সিলিন্ডার নিয়ে যেতে এসেছে।’ তবে এর পালটা জবাব দিয়েছেন এসএফআই নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি, ‘ওই পরিবার চারদিন ধরে সিলিন্ডার আটকে রেখেছেন। তাঁদের বাড়িতে পুরনিগমের বাড়তি দুটি সিলিন্ডার রয়েছে। রোগীর অক্সিজেনের মাত্রাও কিছুটা ঠিক রয়েছে। সেক্ষেত্রে অপর একজন বিপন্ন রোগীর কাছে সিলিন্ডারটি পৌঁছে দেওয়া দরকার।’

এদিকে গোটা ঘটনায় দুপক্ষের মধ্যে বচসাও চরমে ওঠে। যাঁরা আর্তের সেবায় নেমেছেন তাঁদের সঙ্গে এই দুর্ব্যবহার কতটা যুক্তিযুক্ত তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। তবে আপাতত দুপক্ষই ঝামেলা মিটিয়ে নিয়েছেন। ভিডিওটাকেও ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়া থেকে। আপাতত যাবতীয় ভুল বোঝাবুঝি, মন কষাকষিকে দূরে সরিয়ে রেখে ফের সংকটে মানুষের পাশে রেড ভলান্টিয়ার্সরা। 

 

বন্ধ করুন