বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হেলমেট-মাস্ক পরলেই ফ্রি'তে ১ লিটার পেট্রল, গাছের চারা বপনে ৫০০ গ্রাম সরষের তেল!
হেলমেট ও মাস্ক পরলেই বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে এক লিটার পেট্রল। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
হেলমেট ও মাস্ক পরলেই বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে এক লিটার পেট্রল। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

হেলমেট-মাস্ক পরলেই ফ্রি'তে ১ লিটার পেট্রল, গাছের চারা বপনে ৫০০ গ্রাম সরষের তেল!

  • এমনই উদ্যোগ নিল পূর্ব বর্ধমানের পাল্লারোড পল্লিমঙ্গল সমিতি।

হেলমেট ও মাস্ক পরলেই বিনামূল্যে মিলবে এক লিটার পেট্রল। অরণ্য সপ্তাহে একটি গাছের চারা বপনের ছবি দেখাতে পারলেই পাওয়া যাবে ৫০০ গ্রাম সরষের তেল। করোনাভাইরাস এবং পরিবেশ নিয়ে সচেতনতা প্রসারে এমনই উদ্যোগ নিল পূর্ব বর্ধমানের পাল্লারোড পল্লিমঙ্গল সমিতি।

সোমবার ওই সমিতির তরফে বর্ধমানের সাধনপুর এলাকায় সেই বিনামূল্য পেট্রল ও সরষের তেল দেওয়ার মাধ্যমে সচেতনতা প্রচার চালানো হয়। সঙ্গে ছিলেন পুলিশকর্মীরাও। হেলমেট এবং মাস্ক থাকা বাইক-আরোহীদের দেখলেই দাঁড় করানো হচ্ছিল। লাগামহীনভাবে জ্বালানি তেলের দাম বাড়লেও কেন বিনামূল্যে পেট্রল দেওয়া হচ্ছে, তা ব্যাখ্যাও করে দিচ্ছিলেন সমিতির সদস্যরা। তারপর সংশ্লিষ্ট বাইক-আরোহী তেলের জায়গায় বোতল থেকে পেট্রল ঢেলে নিচ্ছিলেন। একইভাবে অগ্নিমূল্য বাজার সত্ত্বেও অরণ্য সপ্তাহে একটি গাছের চারা বপনের ছবি দেখাতে পারলেই ৫০০ গ্রাম সরষের তেল তুলে দেওয়া হচ্ছিল।

বিনামূল্যে এক লিটার এবং সরষের তেল পেয়ে স্বভাবতই খুশি আমজনতা। এক ব্যক্তি বলেন, 'এটা খুব ভালো উদ্যোগ। সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।' অপর এক বাইক-আরোহী বলেন, 'করোনা পরিস্থিতিতে খুব ভালো উদ্যোগ এটা।

সমিতির সম্পাদক সন্দীপন সরকার জানিয়েছেন, কোভিডের তৃতীয় ঢেউ আটকাতে মাস্ক ব্যবহার, বন মহোৎসব কর্মসূচির মধ্যে সবুজায়ন নিয়ে সচেতনতার প্রসারের জন্য এরকম উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে লাগামহীন জ্বালানি তেলের দাম বৃ্দ্ধির বিরুদ্ধে প্রতিবাদের বার্তাও দেওয়া হয়েছে। আপাতত জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সপ্তাহে দু'দিন এই কর্মসূচি পালন করা হবে। সন্দীপন বলেছেন, ‘ক্লাব মানে শুধু রক্তদান বা কমিউনিটি কিচেন করে পাশে থাকা নয়, মানুষের নিত্যদিনের সমস্যার প্রতিবাদেও সামিল হতে হয়। তাই সারা বছর পল্লিমঙ্গল সমিতি সাধারণ মানুষের সঙ্গে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে থাকে। বর্তমানে মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর তাই এই সময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকতেই তাঁদের এই উদ্যোগ।’

বন্ধ করুন