বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ইঞ্জেকশনের আতঙ্কে চড়ে বসেছিলেন গাছে, পড়ে গিয়ে মৃত্যু! ঝোপ থেকে উদ্ধার দেহ
ইঞ্জেকশনের ভয় পেতেন ওই ব্যক্তি (প্রতীকী ছবি) (Bloomberg)
ইঞ্জেকশনের ভয় পেতেন ওই ব্যক্তি (প্রতীকী ছবি) (Bloomberg)

ইঞ্জেকশনের আতঙ্কে চড়ে বসেছিলেন গাছে, পড়ে গিয়ে মৃত্যু! ঝোপ থেকে উদ্ধার দেহ

  • চিকিৎসকের বাড়ির সামনে পর্যন্ত তিনি গাড়ির ভেতরেই ছিলেন। তারপরে তিনি আঁচ করে ফেলেন যে তাঁকে ইঞ্জেকশন দেওয়া হবে।

ইঞ্জেকশনের ভয় কম বেশি অনেকেরই থাকে। টিকা নিতে গিয়ে চিল চিৎকারের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু এবার সেই ইঞ্জেকশনের সূচ ফোটানোর আতঙ্কেই একেবার গাছে চড়েছিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। গাছ থেকে পড়ে মৃত্যু হয়েছে মানসিক ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তির। বাঁকুড়ার নতুনচটির কৃষি দফতরের ফার্মের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। গাছ থেকে পড়ে গিয়েই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান পুলিশের।

স্থানীয় সূত্রে খবর সন্দীপ বন্দ্যোপাধ্যায় নামে ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য বাঁকুড়া শহরের এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। কার্যত একরকম ধরে বেঁধেই নিয়ে যাওয়া হয়েছিল তাঁকে। এরপর চিকিৎসকের বাড়ির সামনে পর্যন্ত তিনি গাড়ির ভেতরেই ছিলেন। তারপরে তিনি আঁচ করে ফেলেন যে তাঁকে ইঞ্জেকশন দেওয়া হবে। এদিকে সূচ ফোটানোর ভয় তাকে আঁকড়ে ধরে।

এরপর চিকিৎসকের এর সহযোগী ইঞ্জেকশন দেওয়ার জন্য গাড়ির কাছে আসেন। তখনই সকলের হাত ছাড়িয়ে, গাড়ি থেকে নেমে দে দৌড়। এরপর নানা জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। থানায় একটি মিসিং ডায়রিও করেছিলেন পরিবারের সদস্যরা। পরে রবিবার সকালে কৃষি ফার্মে একটি গাছের নীচে ঝোপের মধ্যে থেকে তার দেহ উদ্ধার করা হয়। তার মুখে আঘাতের চিহ্ন ছিল। সেখানে থেকেই অনুমান করা হচ্ছে, ইঞ্জেকশনের আতঙ্কে তিনি গাছে উঠে পড়েছিলেন। পরে সেই গাছ থেকেই পড়ে যান ওই ব্যক্তি। দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। 

 

বন্ধ করুন