বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌ভুল ইঞ্জেকশন দিয়ে রোগীকে মেরে দেব’‌, রোগীর পরিবারকে চরম হুমকি নার্সের
উলুবেড়িয়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল।
উলুবেড়িয়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল।

‘‌ভুল ইঞ্জেকশন দিয়ে রোগীকে মেরে দেব’‌, রোগীর পরিবারকে চরম হুমকি নার্সের

  • এই ঘটনার পর তুলকালাম পরিস্থিতি তৈরি হয় হাসপাতালে। রোগীর পরিবারের সদস্যরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

রোগীর সেবা করাই তাঁদের পেশার মূল কথা। সেখানে রোগীর সেবা তো দূরের কথা উলটে রোগীর পরিবারের সদস্যদের জুটল রোগীকে মেরে ফেলার হুমকি। এমনই অভিযোগ উঠেছে কর্তব্যরত নার্সের বিরুদ্ধে। আর ঘটনাটি ঘটেছে উলুবেড়িয়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। যেখানে নার্স রোগীকে ভুল ইঞ্জেকশন দিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছেন।

ঠিক কী ঘটেছে হাসপাতালে?‌ রোগীর পরিবারের অভিযোগ, অক্সিজেন শেষ হয়ে যেতেই রোগীর অবস্থা খারাপ হয়। তাই দেখে ভয় পেয়ে চিকিৎসক ও নার্সদের কাছে ছুটে যাই। অক্সিজেনের ব্যবস্থা করার আর্জি জানাতেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন কর্তব্যরত নার্স। তখনই ভুল ইঞ্জেকশন দিয়ে রোগীকে মেরে ফেলার হুমকি দেন ওই নার্স।

এই ঘটনার পর তুলকালাম পরিস্থিতি তৈরি হয় হাসপাতালে। রোগীর পরিবারের সদস্যরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অ্যাসিড পান করে মঙ্গলবার দুপুরে উলুবেড়িয়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি হন শেখ সাবিনা খাতুন। সেখানেই চলছিল চিকিৎসা। পরিবারের সদস্যরা এসে দেখেন অক্সিজেন প্রায় শেষ। আর রোগীর অবস্থা খারাপ হতে থাকে। তা দেখে নার্স এবং চিকিৎসকদের ডাকতে যান রোগীর পরিবারের সদস্যরা। অক্সিজেন দেওয়ার আর্জি জানান। অভিযোগ, তাঁদের আর্জিতে সাড়া দেননি কর্তব্যরত নার্স। এই অবস্থায় তাঁরা চাপ দিতেই তাঁদের পাল্টা হুমকি দিয়ে নার্স বলেন, ‘‌বিরক্ত করলে ভুল ইঞ্জেকশন দিয়ে রোগীকে মেরে দেব।’‌

এই ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে। নার্সের মুখে এমন হুমকি শুনে হতবাক রোগীর পরিবারের সদস্যরা। তাই তাঁরা ক্ষোভ উগড়ে দেন। বচসা চরমে ওঠে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছিল। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তড়িঘড়ি রোগীকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করেন। যদিও উলুবেড়িয়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের সুপার সুদীপ্তরঞ্জন কাড়ার বলেন, ‘‌নার্সের এই আচরণ বিশ্বাসযোগ্য নয়। তবুও রোগীর বাড়ির লোক অভিযোগ করলে ঘটনার তদন্ত হবে।’‌

বন্ধ করুন