বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শিলিগুড়িতে নয়ানজুলি থেকে নরকঙ্কাল উদ্ধার
 (প্রতীকী ছবি)
 (প্রতীকী ছবি)

শিলিগুড়িতে নয়ানজুলি থেকে নরকঙ্কাল উদ্ধার

কীভাবে ওই দেহটিকে নয়ালজুলিতে ফেলে আসা হল, এই ঘটনার সঙ্গে কে বা কারা জড়িত, পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে।

‌শিলিগুড়িতে নয়ানজুলি থেকে উদ্ধার হল নরকঙ্কালের দেহ। প্রাথমিকভাবে কঙ্কালটিকে দেখে মহিলার বলেই মনে হচ্ছে। এভাবে আচমকাই নরকঙ্কাল উদ্ধার হওয়ায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ির তিনবাত্তি সংলগ্ন কাশ্মীর কলোনি এলাকায় নয়ানজুলিতে একটি নরকঙ্কাল পড়ে থাকতে দেখা যায়। প্রথমে ওই কঙ্কালটির দিকে চোখ পড়ে এলাকারই এক শিশুর। সে তখন তাঁর অভিভাবককে জানায়। এরপর অভিভাবকরা বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর আশেপাশের বাসিন্দাদের জানায়। এলাকার বাসিন্দারাই পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে নরকঙ্কালটিকে উদ্ধার করে। এরপর কঙ্কালটিকে পরীক্ষা নিরিক্ষার জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। কঙ্কালটির হাতে চুড়ি ও পরনে মহিলাদের শাড়ি রয়েছে। এর থেকে অনুমান, এই কঙ্কালটি কোনও মহিলার হবে। তবে ফরেনসিক পরীক্ষার রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত এই বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারছে না পুলিশ।

ইতিমধ্যে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। কীভাবে ওই দেহটিকে নয়ালজুলিতে ফেলে আসা হল, এই ঘটনার সঙ্গে কে বা কারা জড়িত, পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, এক মাস আগে এই দেহকে ফেলে রেখে যাওয়া হয়েছে। তদন্তকারীদের প্রথমে সন্দেহ হয়, পচা গলা দেহ থেকে দুর্গন্ধ বেরোলেও এলাকাবাসীদের কেন সন্দেহ হল না। এই বিষয়ে তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে, এই জায়গায় এর আগেও কোনও পশুর মৃতদেহ ফেলে রেখে দিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ফলে দুর্গন্ধ এলাকার বাসিন্দাদের কাছে নতুন কোনও বিষয় নয়। এর থেকে পুলিশের অনুমান, মৃতদেহ এই জায়গায় ফেলে রেখে যাওয়ার পিছনে মূল অভিযুক্তরা এই বিষয়টিও চিন্তা করে থাকতে পারে। মৃতদেহের পরিচয়, কীভাবেই বা এই খুন হল, সেটাই এখন খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বন্ধ করুন