বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শিলিগুড়িতে ঘাঁটি গেড়েছিল পাক গুপ্তচর? পাকড়াও করল STF, বিশাল পর্দাফাঁস

শিলিগুড়িতে ঘাঁটি গেড়েছিল পাক গুপ্তচর? পাকড়াও করল STF, বিশাল পর্দাফাঁস

পাক গুপ্তচর সন্দেহে গ্রেফতার যুবক

এর আগে কালিম্পং থেকে পাক গুপ্তচর সন্দেহে এক যুবককে বেঙ্গল এসটিএফ গ্রেফতার করেছিল। ধৃতের নাম পীর মহম্মদ। তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল।

পাক গুপ্তচর সন্দেহে এক যুবককে শিলিগুড়ি থেকে গ্রেফতার করল পুলিশ। আদপে বিহারের চম্পারণ জেলার বাসিন্দা ওই যুবক। ধৃতের নাম গুড্ডু কুমার। রাজ্য পুলিশের এসটিএফ বুধবার নিউ জলপাইগুড়ি থানার অন্তর্গত ভারত নগর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিন জলপাইগুড়ি আদালতে তোলা হয়েছিল তাকে।এদিকে এই ঘটনায় আর কেউ জড়িত কি না তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। ওই যুবক আইএসআই এজেন্ট হিসাবে কাজ করত বলে অভিযোগ। তবে সে পাকিস্তানে তথ্য পাচার করত কি না, আর কারা তার সঙ্গে যুক্ত, কতদূর জাল বিছিয়েছিল সে তা দেখা হচ্ছে।

এদিকে অভিজ্ঞমহলের মতে, জাতীয় সুরক্ষার নিরিখে অত্য়ন্ত গুরুত্বপূর্ণ শিলিগুড়ি। সেই শিলিগুড়ি ও সংলগ্ন এলাকা থেকে এই ধরনের সন্দেহভাজনদের গ্রেফতারকে কেন্দ্র করে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এদিকে এর আগে কালিম্পং থেকে পাক গুপ্তচর সন্দেহে এক যুবককে বেঙ্গল এসটিএফ গ্রেফতার করেছিল। ধৃতের নাম পীর মহম্মদ। তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। অভিযুক্ত যুবক পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখত বলে অভিযোগ।

কালিম্পংয়ে টাকা ধার দেওয়ার ব্যবসা করত ওই যুবক। সামনে সেই এই কাজ করত। তবে পেছনে তার অন্য় মতলব কাজ করত বলে জানতে পারে এসটিএফ। এদিকে ওই যুবকের ফোনে ভারতীয় সেনা ক্যাম্পের ছবিও পাওয়া যায়। এমনকী পাকিস্তানের সিম কার্ডও তার কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছিল বলে অভিযোগ। ওই ব্যক্তি একাধিক অ্য়াপ ব্যবহার করে পাক সেনা কর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখত বলে অভিযোগ।

এবার উত্তরবঙ্গের সদর শহর শিলিগুড়ি সংলগ্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হল অপর সন্দেহভাজন যুবককে। শিলিগুড়িতে সে ঘাঁটি গেড়েছিল বলে অভিযোগ।

 

বন্ধ করুন