বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Durgapur Arrest: যাত্রীর ব্যাগে মিলল বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা, দুর্গাপুরে গ্রেফতার ব্যক্তি
ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে রেলপুলিশ।

Durgapur Arrest: যাত্রীর ব্যাগে মিলল বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা, দুর্গাপুরে গ্রেফতার ব্যক্তি

  • অর্পিতা মুখোপাধ্যায় থেকে রাজু সাহানি—বাড়ি থেকে মিলেছে প্রচুর নগদ টাকা। এবার সধারণ রেলযাত্রীর কাছে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে পুলিশের। একমাস আগে হাওড়া স্টেশনে থেকে রাজকুমার সোনি নামে এক প্রৌঢ়কে গ্রেফতার করেছিল রেলপুলিশ। তাঁর ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয়েছিল ৩৫ লক্ষ টাকা।

আর নেতাদের বাড়ি থেকে নয়। এবার খোদ সাধারণ ট্রেন যাত্রীর ব্যাগ থেকেই মিলল লাখ লাখ নগদ টাকা। দুর্গাপুর ষ্টেশনে এক যাত্রীর থেকে উদ্ধার হল নগদ ৩৬ লক্ষ টাকা। আর তাতেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। শুক্রবার বেশি রাতে এই ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে রেলপুলিশ। তিনি মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা বলে জানতে পেরেছে রেল পুলিশ। কেন এত টাকা তিনি নিয়ে বাংলায় এসেছিলেন?‌ তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ঠিক কী ঘটেছে দুর্গাপুরে?‌ অন্ডাল জিআরপি সূত্রে খবর, গ্রেফতার হওয়া রেলযাত্রীর নাম মূলচাঁদ। তিনি মধ্যপ্রদেশের জব্বলপুরের বাসিন্দা। শুক্রবার মুম্বই মেলে হাওড়া যাচ্ছিলেন। হঠাৎ মাঝপথে দুর্গাপুর স্টেশনে তিনি ট্রেন থেকে নেমে পড়েন। তারপর প্ল্যাটফর্মে ঘোরাফেরা করতে থাকেন। এই দেখে সন্দেহ হয় কর্মরত আরপিএফ জওয়ানদের। তাঁকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তখন তাঁর কথাবার্তার মধ্যে অসঙ্গতি লক্ষ্য করা যায়। এরপরেই তাঁর ব্যাগ তল্লাশি করা হয়। আর তাঁর ব্যাগ থেকে নগদ ৩৬ লাখ টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। তখনই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ কী তথ্য পেয়েছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত জেরায় জানিয়েছেন, তাঁকে ওই টাকা হাওড়া স্টেশনে পৌঁছে দিতে বলা হয়েছিল। কে বলেছিল?‌ তিনি জানাননি। এমনকী এই টাকা সংক্রান্ত কোনও নথি দেখাতে পারেননি। তাই নেপথ্যে কারা আছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুলিশ ওই টাকা বাজেয়াপ্ত করে অভিযুক্তকে নিয়ে যাওয়া হয় অন্ডাল জিআরপিতে। হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাচার করা হচ্ছিল কি না সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অন্ডাল জিআরপি ওসি সুজন ঘোষ জানান, নগদ ৩৬ লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তাঁকে হেফাজতে নিজে ১০ দিন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবেদন করা হয়েছে। দেখা যাক টাকার উৎস বেরিয়ে আসে কিনা।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ অর্পিতা মুখোপাধ্যায় থেকে রাজু সাহানি—বাড়ি থেকে মিলেছে প্রচুর নগদ টাকা। এবার সধারণ রেলযাত্রীর কাছে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে পুলিশের। একমাস আগে হাওড়া স্টেশনে থেকে রাজকুমার সোনি নামে এক প্রৌঢ়কে গ্রেফতার করেছিল রেলপুলিশ। তাঁর ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয়েছিল ৩৫ লক্ষ টাকা। তিনিও জব্বলপুরের বাসিন্দা। সুতরাং একটা বড় চক্র কাজ করছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন