বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Chakdah College: প্রেম নিবেদন করে বিপাকে ছাত্রছাত্রীরা, চাকদা কলেজ কর্তৃপক্ষ জারি করল নোটিশ

Chakdah College: প্রেম নিবেদন করে বিপাকে ছাত্রছাত্রীরা, চাকদা কলেজ কর্তৃপক্ষ জারি করল নোটিশ

কলেজ চত্বরে প্রেম নিবেদন করা যাবে না বলে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

চাকদা কলেজ কর্তৃপক্ষ নোটিশ জারি করলেও বিষয়টি ভালভাবে নেয়নি ছাত্রছাত্রীরা। তাদের একাংশের বক্তব্য, সংবিধানে এবং আইনের বইতে কোথাও লেখা নেই প্রেম নিবেদন এবং তা গ্রহণ করা অপরাধ। আর রইল কলেজ প্রাঙ্গণের কখা। সেখানে ভাল লেগেছে, মেলামেশা–পরিচয় ঘটেছে, তাই কলেজ প্রাঙ্গণেই প্রেম নিবেদন–গ্রহণ হয়েছে।

প্রেমে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে কলেজ। প্রেম নিবেদন করা যাবে না বলে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এমনকী সেই নোটিশে ঘুরিয়ে কলেজ চত্বরে পরস্পরকে মধুর চুম্বন আবিষ্ট করা যাবে না বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। তাতে কলেজের প্রেমিক–প্রেমিকারা বিপাকে পড়েছেন বলে খবর। কলেজ প্রাঙ্গণে তরুণীর সামনে হাঁটু গেড়ে বসে ফুলের তোড়া দিয়ে প্রেম নিবেদন করতে দেখা গিয়েছে কয়েকজন যুবককে। আবার সেই ফুলের তোড়া হাতে নিয়ে প্রেমিকের গালে প্রেমিকা দিলেন মধুর চুম্বন। এমনই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। নদিয়ার চাকদা কলেজের প্রেম নিবেদনের ভিডিয়ো এখন ভাইরাল। যদিও এই ভিডিয়ো’‌র সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা ডিজিটাল। এমনকী কঠোর পদক্ষেপ করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

ঠিক কী করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ?‌ এই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই নোটিশ জারি করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। সেখানে সমস্ত ছাত্রছাত্রীর উদ্দেশে উল্লেখ করা দিয়েছে, ‘‌এই ভাইরাল ভিডিয়ো কলেজের ভাবমূর্তি–সম্মান ক্ষুন্ন করেছে। আর যে সকল ছাত্রছাত্রী এই ধরনের কাজে সক্রিয় ছিল, তাদের সকলকে আগামী নোটিশ পর্যন্ত কলেজে ঢুকতে নিষেধ করা হচ্ছে। একইসঙ্গে ভবিষ্যতে কলেজ প্রাঙ্গণে এই ধরনের কাজে কেউ যুক্ত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।’‌ সুতরাং কলেজ প্রেমে বাধা হয়ে দাঁড়াল। যা নিয়ে ছাত্রছাত্রীদের একাংশের বক্তব্য, প্রেম নিবেদন করা খারাপ নাকি!‌

ঠিক কী বক্তব্য কলেজের?‌ চাকদা কলেজের অধ্যক্ষ স্বাগতা দাস মোহন্ত বলেন, ‘‌আমাদের কলেজে ডিসিপ্লিন অ্যান্ড কোড অফ কন্ডাক্ট কমিটি আছে। ওই ভিডিয়ো দেখার পর ১৯ নভেম্বরে ওই কমিটির বৈঠক ডাকে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ছাত্রছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকদের ডাকা হয়। সকলেই এই ধরনের কাজ করবে না বলে কথা দিয়েছে। তাই অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’‌

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ চাকদা কলেজ কর্তৃপক্ষ নোটিশ জারি করলেও বিষয়টি ভালভাবে নেয়নি ছাত্রছাত্রীরা। তাদের একাংশের বক্তব্য, সংবিধানে এবং আইনের বইতে কোথাও লেখা নেই প্রেম নিবেদন এবং তা গ্রহণ করা অপরাধ। আর রইল কলেজ প্রাঙ্গণের কখা। সেখানে ভাল লেগেছে, মেলামেশা–পরিচয় ঘটেছে, তাই কলেজ প্রাঙ্গণেই প্রেম নিবেদন–গ্রহণ হয়েছে। অশালীন কিছু তো করা হয়নি। যদিও এই বিষয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের চাকদা কলেজ ইউনিটের সভাপতি সুরাজ মণ্ডল কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

বন্ধ করুন