বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রেললাইনের ধারে যুবকের ঝুলন্ত দেহ, মুখে মাস্ক ও কানে হেডফোন, তদন্তে পুলিশ
যুবকের দেহ উদ্ধার রেললাইনের ধার থেকে।
যুবকের দেহ উদ্ধার রেললাইনের ধার থেকে।

রেললাইনের ধারে যুবকের ঝুলন্ত দেহ, মুখে মাস্ক ও কানে হেডফোন, তদন্তে পুলিশ

  • এটা খুন নাকি আত্মহত্যা? তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যুবকের পরিচয় জানতে পেরেছে পুলিশ। তারপরই তদন্ত শুরু হয়েছে।

করোনাভাইরাস ঠেকাতে এখন মুখে মাস্ক পরতেই হচ্ছে। ফলে মানুষের মুখ ঢাকাই থাকছে। তার মধ্যে আবার অনেকে কানে হোডফোন দিয়ে হাঁটছেন। সুতরাং দুর্ঘটনা ঘটছে। বুধবার এমনই একটি দেহ উদ্ধার হল রেললাইনের ধার থেকে। আর তাতেই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

ঠিক কী ঘটেছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, আজ এক যুবকের দেহ উদ্ধার হয়েছে। ওই যুবকের মুখে মাস্ক এবং কানে হেডফোন লাগানো ছিল। রেললাইনের ধার থেকে উদ্ধার করা হয়েছে যুবকের দেহটি। ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার নিশ্চিন্দায়। এটা খুন নাকি আত্মহত্যা? তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যুবকের পরিচয় জানতে পেরেছে পুলিশ। তারপরই তদন্ত শুরু হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বেলুড় স্টেশন সামান্য দূরেই নিশ্চিন্দা থানার সাঁপুইপাড়া এলাকায় পড়ে ১২ নম্বর রেলগেট। জায়গাটি অপেক্ষাকৃত নির্জন। আজ সকালে দেখা যায়, আনুমানিক ২৫ বছরের এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় থানায়। দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। আর মৃত যুবকের মোবাইলটি বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, মৃত এই যুবকের নাম দীপক মেহরা। পূর্ব বর্ধমানের মাধবপুরে তাঁর বাড়ি। দেহটি ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। কিন্তু পা দুটি মাটিতে ঠেকে ছিল। তাই এটি খুন? নাকি আত্মহত্যা? খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মুখ মাস্ক পরা ছিল। আর কানে হেডফোনও ছিল। এভাবে আত্মহত্যা করা যায় নাকি। ভাবিয়ে তুলেছে তদন্তকারীদের।

বন্ধ করুন