বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দেগঙ্গায় আব্বাস সিদ্দিকিকে ঘিরে বিক্ষোভ তৃণমূলের
ফুরফুরা শরিফের পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি। ফাইল ছবি
ফুরফুরা শরিফের পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি। ফাইল ছবি

দেগঙ্গায় আব্বাস সিদ্দিকিকে ঘিরে বিক্ষোভ তৃণমূলের

  • ISF সমর্থকদের পালটা দাবি, আব্বাস সিদ্দিকিকে বাধা দিতেই অযৌক্তিক অভিযোগ তুলছে তৃণমূল সমর্থকরা।

উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গায় মাদ্রাসার উদ্বোধন করতে গিয়ে তৃণমূলের হামলার মুখে পড়লেন আব্বাস সিদ্দিকি। বুধবার দেগঙ্গার দক্ষিণ বরুণী গ্রামে ঢুকলে তাঁর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তৃণমূল সমর্থকরা। ISF-এর দাবি, তৃণমূল হামলা চালিয়েছে আব্বাসের গাড়ির ওপরে। তৃণমূলের পালটা দাবি, হামলা চালিয়েছে আব্বাসের সমর্থকরাই।

স্থানীয় এক তৃণমূল সমর্থক জানিয়েছেন, আব্বাস সিদ্দিকি বেআইনিভাবে গ্রামে মাদ্রাসা বানাচ্ছেন। আমরা তাঁর কাছে জবাব চেয়েছিলাম। তিনি কোনও উত্তর দিতে পারেননি। উলটে এক গ্রামবাসীর পায়ের ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে চলে যান। এর পর ISF সমর্থকরা তৃণমূল সমর্থকদের ওপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ। পালটা হামলার অভিযোগ করেছে ISF-ও।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, ওই এলাকায় মেয়েদের একটি মাদ্রাসা রয়েছে। তার পাশে ছেলেদের মাদ্রাসা হলে ‘দুর্ঘটনা হবে’।

ISF সমর্থকদের পালটা দাবি, আব্বাস সিদ্দিকিকে বাধা দিতেই অযৌক্তিক অভিযোগ তুলছে তৃণমূল সমর্থকরা। খবর পেয়ে গ্রামে পৌঁছয় দেগঙ্গা থানার পুলিশ। তারাই পরিস্থিতি শান্ত করে।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রথমে AIMIM-এর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন আব্বাস সিদ্দিকি। ফুরফুরা শরিফে তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেন AIMIM প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসি। এর পর হঠাৎ মত বদলে বাম কংগ্রেস জোটে সামিল হন তিনি। রাজ্যে জোটের একমাত্র আসনটি জেতে ISF. ভাঙড় কেন্দ্রে জয়লাভ করেন আব্বাসের দাদা নওসাদ সিদ্দিকি।

 

বন্ধ করুন