বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Haskhali case: ‘মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পকসো আইনে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত’ মীনাক্ষী
নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পর মীনাক্ষী মুখার্জি। নিজস্ব ছবি।

Haskhali case: ‘মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পকসো আইনে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত’ মীনাক্ষী

  • তিনি বলেন, ‘যে ঘটনা ঘটেছে তাতে নির্যাতিতার পরিবারকে সমবেদনা জানানোর মতো ভাষা নেই। তারা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।’

হাঁসখালিতে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে রাজ্য সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন ডিওয়াইএফআই নেত্রী মীনাক্ষী মুখার্জি। তিনি মনে করেন, হাঁসখালির গণধর্ষণ নিয়ে যারা অশ্লীল বিবৃতি দিয়েছেন বা দিচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। এ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে হাঁসখালি নিয়ে বক্তব্য রাখা নেতা মন্ত্রীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে তৃণমূলের যে সমস্ত নেতারা অশ্লীল বিবৃতি দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।’

হাঁসখালিতে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে অপরাধীদের শাস্তির জন্য ডিওয়াইএফআই-এর পক্ষ থেকে আন্দোলন চালানো হবে বলে জানিয়েছেন মীনাক্ষী। তিনি বলেন, ‘যে ঘটনা ঘটেছে তাতে নির্যাতিতার পরিবারকে সমবেদনা জানানোর মতো ভাষা নেই। তারা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। আর এই আতঙ্ক প্রত্যেকদিন ছড়াচ্ছে রাজ্যে। যারা আতঙ্ক ছড়াচ্ছে তারা প্রত্যেকেই শাসক দলের নেতা মন্ত্রী। তাই রাজ্যজুড়ে এই ঘটনা রুখতে আমাদেরই রাস্তায় নামতে হবে।’

উল্লেখ্য, হাঁসখালি ধর্ষণকাণ্ডের পরেই একের পর এক মন্তব্য নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন তৃণমূল নেতারা। এ প্রসঙ্গে মীনাক্ষীর সাফ কথা, ‘আগে এদেরকে গ্রেফতার করতে হবে।’ প্রসঙ্গত, কলকাতা হাইকোর্টের কাছ থেকে তদন্তভার পেয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু নমুনা সংগ্রহ করেছেন সিবিআইয়ের তদন্তকারী আধিকারিকরা। অন্যদিকে, নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। পাশাপাশি বিজেপির ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিটিও নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছে। সিবিআই তদন্ত প্রসঙ্গে মীনাক্ষী বলেন, ‘আমরা চাই সিবিআই তাড়াতাড়ি তদন্ত শুরু করে যত দ্রুত সম্ভব দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তি দিক।’

বন্ধ করুন